নবীগঞ্জে হবে ‘জালালাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়’

dial dial

sylhet

প্রকাশিত: ৮:৪১ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৩১, ২০১৯

নবীগঞ্জ সংবাদদাতা :: হবিগঞ্জ নবীগঞ্জ উপজেলার দিনারপুর এলাকায় নতুন বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করার কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। বর্তমানে আউশকান্দি বাজার এলাকায় একটি কমিউনিটি সেন্টারে পাঠদানসহ অফিয়াল কার্যক্রম শুরু হবে আগামী জানুয়ারি মাসে। ‘ জালালাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়’ নাম দিয়ে কার্যক্রম শুরুর প্রস্তুতি নিয়েছে জালালাবাদ এসোসিয়েশন ঢাকা।

বুধবার (২৯ অক্টোবর) জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সূত্রে এ উদ্যোগ গ্রহণের খবর জানা গেছে।

প্রফেসর ড. জামিলুর রেজা চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রস্তাবিত জলালাবাদ বিশ্ববিদ্যালয় উপদেষ্টা কমিটি ও জালালাবাদ বিশ্ববিদ্যালয় প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির যৌথসভা রাজধানীর জালালাবাদ ভবনে অনুষ্ঠিত হয় ।

জালালাবাদ এসোসিয়েশনের পৃষ্ঠপোষকতায় হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার দিনারপুরের পাহাড়ি এলাকায় জালালাবাদ সাইন্স, টেকনোলজি ও ম্যানেজমেন্ট বিশ্ববিদ্যাল স্থাপনের লক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয় ।

জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি সি এম তোফায়েল সামি বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের প্রথম চেয়ারম্যান করার জন্য সাবেক অর্থমন্ত্রী এমএ মুহিতের নাম প্রস্তাব করলে সর্বসম্মতিক্রমে তা গৃহীত হয়। এছাড়াও ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী ও ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন এর তত্বাবধানে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের টেকনিক্যাল বিষয়ের কাজ হবে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন সাবকে অর্থমন্ত্রী এম এ মুহিত , সাবেক সভাপতি সি এম তোফায়েল সামি, ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূমিদাতা অধ্যাপক সালমা মুকুল, ভ আতাউর রহমান আতা, সাবেক তত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা রাশেদা কে চৌধুরী, আব্দুল কাদির মাহমুদ, সি এম দেলোয়ার রানা, সৈয়দ জগলুল পাশা, সচিব জালাল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক এড. জসিম উদ্দিন আহমদ, আব্দুল আহাদ চৌধুরী, আকবর হোসেন মঞ্জু, চৌধুরী ফুয়াদ আহমেদ, মো. আমিনুল বর চৌধুরী, মাহমুদা আকতার মীনা, সৈয়দ মোশতাক আহমদ, মো. এহছান এলাহি, জাফর রাজা চৌধুরী, শাহাবুদ্দিন শুভ, মো. শফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ জগলুল পাশা অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের জমি পরিদর্শনসহ বিভিন্ন কার্যক্রম তুলে ধরেন।

জালালাবাদ এসোসিয়েশন এর সদস্য যুগ্ম সচিব জালাল আহমেদ জানান, আমরা আগামী বছর প্রথমে দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম শুরুর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। বর্তমানে উপজেলার আউশকান্দি বাজারের একটি কমিউনিটি সেন্টারে দাপ্তরিক কার্যক্রম শুরু হবে। পরবর্তী স্থায়ীভাবে তা স্থানান্তর করা হবে।

0Shares