নির্যাতিত মেয়েটার পাশে দাঁড়ানোই প্রধান কাজ: ঢাবি ভিসি

dial dial

sylhet

প্রকাশিত: ১২:৪২ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৬, ২০২০

ডায়ালসিলেট ডেস্ক:যৌন নির্যাতনের শিকার শিক্ষার্থীকে সব ধরণের সহযোগিতা দেয়ার আশ্বাস দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি আখতারুজ্জামান বলেছেন, ঘটনাটি অনাকাঙ্খিত, দুঃখজনক। তিনি বলেন, তাকে মানসিকভাবে শক্ত করাই হবে এখন প্রধান কাজ।

আজ সোমবার ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই শিক্ষার্থীকে দেখতে এসে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, এই অনাকাঙ্খিত ও দুঃখজনক ঘটনায় আমি খুবই মর্মাহত। ঢাবি কর্তৃপক্ষ তার অভিভাবক। ঢামেকে তার সঙ্গে তার বাবাসহ পরিবারের লোকজন আছেন। এখন আমাদের প্রধান কাজ হলো তাকে মানসিকভাবে সামর্থ্য করে  তোলা। মেয়ের সঙ্গে কথা বলেছি, তার মনোবল শক্ত আছে। এখন প্রধান কাজ হচ্ছে মেয়েটার পাশে দাঁড়ানো।

দোষীদের আইনের আওতায় আনতে পুলিশকে অনুরোধ করা হয়েছে জানিয়ে ভিসি আরও বলেন, ক্যান্টনমেন্ট থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। পুলিশ এ বিষয়ে তৎপর আছে।

মেয়েটিকে দেখতে এসে গুলশান জোনের এডিসি মো. কামরুজ্জামান বলেন, প্রথমে ভীতিকর অবস্থায় থাকলেও এখন ভাল আছে।

তার বিষয়টি নিয়ে কাজ করছে পুলিশ।

এদিকে, ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগ্রেডিয়ার  জেনারেল একেএম নাসিরউদ্দিন বলেন, ৫ই জানুয়ারি রাত থেকে মেয়েটি ঢামেক হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি আছে। তার সব ধরনের চিকিৎসা চলছে। তার মেন্টালি ট্রমা ছাড়াও শারীরে কিছু আঘাত রয়েছে। পাশাপাশি সে কিছু সমস্যার কথাও জানিয়েছে।

0Shares