যারা মুজিববর্ষ পালন করবে না তারা স্বাধীনতা বিশ্বাস করে না: পানি সম্পদ উপমন্ত্রী

dial dial

sylhet

প্রকাশিত: ৭:৫২ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১০, ২০২০

ডায়ালসিলেট ডেস্ক:পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম বলেছেন, রাজনীতিতে ভিন্ন মতাদর্শ থাকবে। কিন্তু জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বাংলাদেশ, স্বাধীনতা নিয়ে নিয়ে মতভেদ থাকতে পারে না। বাংলাদেশের অপর নাম বঙ্গবন্ধু, বঙ্গবন্ধুর অপর নাম বাংলাদেশ। যারা মুজিববর্ষ পালন করবে না, তারা স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব বিশ্বাস করে না। শুক্রবার দুপুরে সেগুনবাগিয়ায় একটি রেস্টুরেন্টে ঢাকাস্থ শরিয়তপুর সাংবাদিক সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভায় তিনি এসব কথা বলেন। এনামুল হক শামীম বলেন, বঙ্গবন্ধু বিহীন বাংলাদেশে তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আজকে উন্নয়নের মহাসড়কে। বাংলাদেশ আজকে উন্নয়নে বিশ্বের রোল মডেল। আজকে প্রতিটি সেক্টরে উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে। নারী-পুরুষ আজকে সমান তালে এগিয়ে যাচ্ছে। এই উন্নয়নের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে সবাইকে নিজ নিজ জায়গায় থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে। শরীয়তপুরের উন্নয়নের ব্যাপারে আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শামীম বলেন, যখনই আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসে তখনই শরীয়তপুরের উন্নয়ন হয়। শুধু শরীয়তপুরই নয়, গোটা বাংলাদেশের উন্নয়ন হয়। কারণ আওয়ামী লীগ গণ মানুষের দল বলেই সর্বত্র উন্নয়ন করে। আওয়ামী লীগ হাওয়া ভবনের দল নয়, লুটপাট করার দল নয়। নিতে নয়, দিতেই আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসে। পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম বলেন, বৃহত্তর শরীয়তপুরে মন্ত্রী হওয়ার মতো কমপক্ষে ২০ জন নেতা রয়েছেন। তারমধ্যে থেকে নেত্রী আমাকে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দিয়েছেন। এটা আমার জন্য অনেক বড় পাওয়া। আমি আমার সততা, দক্ষতা, যোগ্যতা ও পরিশ্রম দিয়ে নেত্রীর আস্থার মর্যাদা দিব। আমার সততা নিয়ে কেউ কখনো প্রশ্ন করতে পারবে না। সততার প্রশ্নে আমি কখনো আপোষ করব না। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশে সাংবাদিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, সাংবাদিকদের লেখনী যেন সত্যের পক্ষে হয়। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করবেন। একজন সাংবাদিকদের লেখনীর মাধ্যমে একজন রাজনীতিবিদের সারাজীবনের অর্জন যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হয়, তেমনি একজন রাজনীতিবিদ অনেক উপরেও উঠে। শরীয়তপুর সাংবাদিক সমিতির সভাপতি রাজু আহমেদের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি সাইফুল আলম, বিদ্যুৎ, খনিজ ও জ্বালানি সচিব আনিছুর রহমান, যুব ও ক্রীড়া সচিব আখতার হোসেন, পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্সের বিএম ইউসুফ আলী, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি রফিকুল ইসলাম আজাদ, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক একেএম আজিজুর রহমান। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আজম।

0Shares