অবসরের সিদ্ধান্ত এখনো নেননি মাশরাফি

dial dial

sylhet

প্রকাশিত: ১০:৫৪ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১১, ২০২০

স্পোটর্স ডেস্ক:গেল বছর ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে অবসর নেয়ার গুঞ্জন ছিল মাশরাফি বিন মুর্তজার। কিন্তু সেটি তিনি উড়িয়ে দেন। বিশ্বকাপ থেকে ফিরে এসে অবসরের ঘোষণা দেননি তিনি। তবে আলোচনা চলছে এ বছর দেশের মাটিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দেশসেরা এই অধিনায়কের বিদায় মঞ্চ সাজাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এরই মধ্যে জানা গেছে ফেব্রুয়ারিতে জিম্বাবুয়ে আসছে বাংলাদেশ সফরে। তাহলে কি মাশরাফির বিদায়ক্ষণ ঘনিয়ে আসছে? কিন্তু গতকাল বঙ্গবন্ধু বিপিএলে ঢাকা প্লাটুনের ম্যাচ শেষে মাশরাফি বলেন, ‘অবসরের কথা যেটা বললেন আমার জায়গা থেকে- আপনি বলতে পারেন আমাকে রিটায়ার সবাই করিয়ে দিয়েছে। আমি নিজেও হয়তোবা ঐ জায়গায় অবস্থান করছি। আমি জাস্ট যেটা খেলছি, সেটাকেই এনজয় করছি।

মাঠ থেকে রিটায়ার করবো কি করবো না সেটা এখনো সিদ্ধান্ত নিইনি। যদি ওরকম কিছু মনে হয়, ক্রিকেট বোর্ড যদি মনে করে তাহলে চিন্তা-ভাবনা করবো।’
আরো কিছু বছর জাতীয় দলে না হলেও ঘরোয়া ক্রিকেট উপভোগ করতে চান মাশরাফি। তিনি বলেন, ‘আমি যখন খেলা শুরু করেছিলাম, আমি আবার সেই জায়গায় ফিরে গিয়েছি। আমি এখন বিপিএল খেলছি। সামনে ঢাকা লীগ উপভোগ করবো, খেলবো। সবসময় জাতীয় দলে খেলতে হবে, জাতীয় দলে খেললেই আপনি প্লেয়ার সেরকম তো না। এখন হয়তো ঐ জায়গায় দাঁড়িয়ে আছি। নিজেকে আমার এতো প্রাধান্য দেবার দরকার নেই। আমি নিজেকে কখনো এতো প্রাধান্য দিইও না। যে আমাকে মাঠ থেকে বিদায় দিবেন সবাই, ফুলের তোড়া নিয়ে আসবে; দরকার নেই। আমি যেরকম আছি ভালো আছি, খুশি আছি। আমি এনজয় করছি খেলা, খেলছি। জাতীয় দল অনেক দূরের ব্যাপার।’
দলে রাখা না রাখার বিষয়টি মাশরাফি ছেড়ে দিয়েছেন বিসিবি সঙ্গে জাতীয় দলের নির্বাচকদের হাতেও। তিনি বলেন, ‘এখন সিলেকশনের তো একটা ব্যাপার। টু বি অনেস্ট বিশ্বকাপে ৮ ম্যাচে ১ উইকেট পাবার পর আমার মতে আমি দলে সুযোগ পাবো না। এটা তো আসলে সিলেকশনের ব্যাপার। নির্বাচকরা যদি মনে করে আমাকে সুযোগ দিবে আমি আমার সর্বোচ্চটা দিয়ে চেষ্টা করবো। এই মুহূর্তে ৮ ম্যাচে ১ উইকেট পেয়ে আমি কিভাবে আপনাদের সামনে বলি যে আমি জাতীয় দলে সুযোগ পাবো? আমার জায়গায় অন্য কেউ হলে তো আরো আগে বাদ পড়তো।’ আমি এখন কি করছি? যখন জিম্বাবুয়ে সিরিজে আমাকে বলা হয়েছিল আমি বলছি খেলবো। আমার সাইড থেকে আমি বলতে পারি আমি খেলতে চাই। সেটা জাতীয় দল হতে হবে এমন কিছু নয়, আমার জায়গায় যারা খেলছে তারাও ভালো করছে।

মোস্তাফিজকে নিয়ে সমালোচনার কড়া জবাব

কিছুদিন আগেই বিপিএলে মোস্তাফিজের বাজে পারফরম্যান্স নিয়ে দারুণ সমালোচনা করেছেন জাতীয় দলের নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন। তবে এমন সমালোচনার বিপক্ষে জবাব দিলেন ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি। তার মতে ক্রিকেটারদের দায়িত্বে থেকে এমন সমালোচনা অনুচিত। তিনি বলেন, ‘যে কথাটা আমি মোস্তাফিজের ক্ষেত্রে বলেছি তাকে যত্ন করাটা খুব জরুরি। এ কথাটা সংক্ষেপে বলেছি। তাকে নিয়ে যদি সমালোচনা আমরাই করতে থাকি, আপনাদের কথা, দর্শকদের কথা আলাদা। সবাই চাইবে ভালো করুক, দর্শকরাও চাইবে ভালো করুক, ভালো না করলে সমালোচনা করবে এটা ঠিক আছে। কিন্তু আমি যখন মোস্তাফিজের দায়িত্বে আছি তখন আমি কেন মোস্তাফিজকে নিয়ে আপনাদের সামনে সমালোচনা করবো?’
কেন মোস্তাফিজকে নিয়ে সামালোচনায় চটেছেন মাশরাফি তারও ব্যাখ্যা দেন। তিনি বলেন, ‘আমি যখন ওর দায়িত্বে থাকবো তখন আমি মোস্তাফিজকে আগলে রাখার চেষ্টা করবো। আমার যদি ওর অর্ধেকও থাকে বাংলাদেশে ফাইন, আমাকে একটা হাফ অফ মোস্তাফিজ দেখান বাংলাদেশে। থাকলে আপনি দেখেন আমাকে। বিশ্বকাপে ২১ উইকেট নিয়ে এসেছে হয়তোবা ইকোনোমি রেট, অনেক কিছু থাকতে পারে। এখন এ জিনিসটা ঠিক করবো কীভাবে? ঠিক করাতো একটা উপায় আছে। পৃথিবীর অনেক বড় বোলারেরও খারাপ ফর্ম গিয়েছে। আমাদের দেশে কেন হচ্ছে না? কারণ আমাদের দেশে মোস্তাফিজকে নিয়ে যারা কাজ করছে তারাও আপনাদের ভাষায় কথা বলছে, বাইরের মানুষ যেটা বলছে সেভাবেই কথা বলছে। তো নিজস্ব চিন্তা ভাবনা কই আমি তাকে ঠিক করবো? ওকে নিয়ে সমালোচনা করে পরেরদিন তাকে নিয়ে আবার আমি মাঠে কাজ করতে যাচ্ছি। ও তো মানুষ, নাকি

0Shares