ডায়াবেটিসকে প্রতিহত করাই হোক এবছরের ডায়াবেটিস সচেতনতা দিবসে সকলের অঙ্গীকার। …অধ্যা.ডা.এম.এ.আহবাব

প্রকাশিত: ৯:০০ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২০

ডায়ালসিলেট ডেস্ক :: ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে না রাখলে পায়ের নানারকম সমস্যাসহ বিভিন্ন শারীরিক জটিলতা দেখা দিতে পারে। এ সমস্যাগুলো জানা থাকলে প্রতিরোধ করাও সম্ভব। পায়ে যদি এক বা একাধিক সমস্যা বর্তমান থাকে, তখন ইনফেকশন বা আঘাতজনিত কারণে পায়ে নানা ধরনের গুরুতর জটিলতার সৃষ্টি হতে পারে। তাই যাদের এখনও ডায়াবেটিস নেই, বংশে থাকুক বা না থাকুক তারা বৎসরে একবার ডায়াবেটিস পরীক্ষা করুন। সকল প্রকার ওজন বাড়ানোর খাবার-দাবার বর্জন করে স্বাস্থ্য সম্মত খাবার গ্রহণ করে নিজেকে নিরোগ রাখুন। কে না চায় নিজেকে শতভাগ ফিট রাখতে। যে কোন উপায়ে ডায়াবেটিসকে প্রতিহত করাই হোক এবছরের ডায়াবেটিস সচেতনতা দিবসে সকলের অঙ্গীকার।

ডায়াবেটিস সচেতনতা দিবস (বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির প্রতিষ্ঠা দিবস) উপলক্ষ্যে সিলেট ডায়াবেটিক সমিতি কর্তৃক আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্য প্রদান কালে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ডা: এম. এ. আহবাব।

২৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২০, বুধবার বেলা ১২টায় সমিতির সভা কক্ষে সিলেট ডায়াবেটিক হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা: ললিত মোহন নাথ এর পরিচালনায় সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন প্যাথলজি শাখার ইনচার্জ মালেক খান।

উক্ত আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কার্যকরি কমিটির সদস্য সাংবাদিক আফতাব চৌধুরী, আব্দুস সামাদ নজরুল প্রমূখ।

এদিকে নীরব ঘাতক ডায়াবেটিস রোগ সম্পর্কে জনসাধারণের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সিলেট ডায়াবেটিক সমিতির উদ্যোগে হাসপাতাল প্রাঙ্গঁনে সকাল ১০ টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত “বিনামূল্যে ডায়াবেটিস সনাক্তকরণ কর্মসূচী”-র উদ্ভোধন করেন সাংবাদিক আফতাব চৌধুরী ও জামিল আহমদ চৌধুরী।

এছাড়াও বেলা ১০ টায় হাসপাতাল প্রাঙ্গঁন থেকে বাদ্যযন্ত্র বাজিয়ে, প্রতিপাদ্য সম্বলিত ব্যানার ও প্লে-কার্ড সহকারে এক “বর্ণাঢ্য র‌্যালী” শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে হাসপাতালে এসে শেষ হয়।

0Shares