করোনাভাইরাস রোধে দিল্লির বুকে ‘গোমূত্র পার্টি”র আয়োজন

প্রকাশিত: ৭:০৭ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৫, ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::    ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির বুকে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে দেশি গোমাতার মূত্রের মাহাত্ম্য প্রচারেই গতকাল শনিবার কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ‘গোমূত্র পার্টি’র আয়োজন করেছিল অখিল ভারত হিন্দু মহাসভা নামের একটি সংগঠন।সেখানে ২০০ মানুষ অংশ নেয়।

প্রতিদিন সময় বেঁধে, নিয়ম করে খাঁটি দেশি গোমূত্র পান করলে নাকি শরীরে বাসা বাঁধবে না কোনও রোগ!

হিন্দু মহাসভার অধ্যক্ষ চক্রপাণি মহারাজ বলেন, ‘‘চিনে জীবহত্যার পাপ চরমে। করোনার আকাল। তা থেকেই করোনাসুরের জন্ম। সকালে পঞ্চগব্য, গোমূত্রের ভোগ দেওয়া হয়েছে তাকে। প্রার্থনা করা হয়েছে শান্ত হতে।’’

পার্টি শেষে পাত পড়ল প্রসাদের। কচুরি, পনীরের তরকারি, পায়েস। যত্ন করে খাওয়াচ্ছিলেন গেরুয়াধারীরা। খাওয়া দাওয়ার মাঝপথে, হাসিমুখে এক গেরুয়াধারী জানালেন, ‘‘আপনারা ভাগ্যবান। এ যাত্রা করোনা আর ছুঁতে পারবে না আপনাদের। প্রসাদেও পঞ্চগব্য আছে কি না।’’

আয়োজনকারীদের বিশ্বাস, গোমূত্রে কিছু ঔষধি গুণ আছে। তবে বিশেষজ্ঞরা অনেক আগে থেকেই বলে আসছেন, ক্যানসার বা এজাতীয় রোগ নিরাময়ে গোমূত্র কোনো কাজে আসে না। আর করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে এটি কাজ করবে—এর কোনো প্রমাণ নেই।

গতকালের গোমূত্র পার্টিতে যোগ দেওয়া এক ব্যক্তি ওমপ্রকাশ বলেন, ‘আমরা ২১ বছর ধরে গোমূত্র পান করছি। গোবর দিয়ে স্নানও করি। কোনোদিন ওষুধ খাওয়ার প্রয়োজন অনুভব করিনি।’

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দল বিজেপির একাধিক কেন্দ্রীয় নেতা একাধিকবার গোমূত্রের ঔষধি গুণের পক্ষে কথা বলেছেন। কেউ কেউ বলেছেন, এটা ক্যানসার সারায়।

0Shares