চীনে এবার বিউবোনিক প্লেগ রোগের কারণে সতর্কতা জারি।

প্রকাশিত: ১:১৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ৭, ২০২০

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক::   চীনের ইনার মঙ্গোলিয়ার বেয়ান নুর শহরে প্লেগের সন্দেহজনক ঘটনাটি ধরা পড়ে। এ ঘটনায় শহরটিতে এক দিন পর গত রোববার জারি করা হয়েছে সতর্কতা।

গত (শনিবার) ইনার মঙ্গোলিয়া অঞ্চলের একটি শহরের হাসপাতালে সন্দেহজনক বিউবোনিক প্লেগ রোগ ধরা পড়েছে। এরপর সেখানকার স্বাস্থ্য কমিটি শহরে সর্বোচ্চ চার স্তরের মধ্যে তৃতীয় স্তরের সতর্কতা জারি করে। এই রোগ যাতে ছড়িয়ে না পড়ে, সে লক্ষ্যে কর্তৃপক্ষ শহরবাসীকে বন্য পশু শিকার ও এর মাংস খাওয়া থেকে বিরত থাকতে সতর্ক করেছে।

ইনার মঙ্গোলিয়ায় গত বছরের নভেম্বরে মানুষের বিউবোনিক প্লেগে আক্রান্ত হওয়ার সন্দেহজনক চারটি ঘটনা শনাক্ত হওয়ার পর এ সতর্কতা ও নির্দেশনা জারি করা হলো।

জানা যায়, ওই চার ঘটনার দুটি ছিল নিউমোনিয়াঘটিত, যা প্লেগের একটি মারাত্মক ধরন। বিউবোনিক প্লেগ ১১০০ থেকে ১৪৫৩ সাল পর্যন্ত সময়ে ‘ব্ল্যাক ডেথ’ নামে পরিচিত ছিল। এটা ইঁদুর, কাঠবিড়ালের মতো তীক্ষ্ণ দাঁতের প্রাণীর মাধ্যমে ছড়াতে পারে ও প্রায়শ প্রাণঘাতী হয়ে ওঠে। ২০০৯ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত চীনে প্লেগে ২৬ জন আক্রান্ত হওয়া ও ১১ জনের মৃত্যু হয়।

প্লেগ বা স্পষ্ট কারণ ছাড়াই কোনো জ্বরের ঘটনা ঘটলে ও কোনো অসুস্থ বা মৃত মামটের (কাঠবিড়ালজাতীয় প্রাণী) দেখা মিললে সে বিষয়ে কর্তৃপক্ষকে জানাতে অনুরোধ করা হয়েছে।

চীন যখন করোনাভাইরাসের সংকট কাটিয়ে উঠছে, যখন স্থানীয় সংক্রমণ প্রায় শূন্যের কোঠায়, তখন এই বিউবোনিক প্লেগের খবর এল। চীনের উহান শহরে গত বছরের শেষ দিকে করোনার প্রাদুর্ভাব দেখা দেয় এবং দ্রুত এর বিস্তার ঘটে। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি সময় তা ভয়াবহ আকার ধারণ করে। তবে এরপরই করোনার সংক্রমণ দ্রুত কমে আসে।

0Shares