ভারতের শহরাঞ্চলে পটকাবাজি পোড়ানোর নিষেধাজ্ঞার নির্দেশ

প্রকাশিত: ৪:০১ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১০, ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃঃ

ভারতের পরিবেশ আদালত শহরাঞ্চলে পটকাবাজি পোড়ানো নিষিদ্ধ করার আদেশ দিয়েছেন। ভারতে পটকাবাজি পোড়ানোর সবচেয়ে বড় মৌসুম সামনে রেখে সোমবার (৯ নভেম্বর) এই রায় দিয়েছেন আদালত। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বাড়ার সঙ্গে দূষণের সম্পর্ক উল্লেখ করে এই আদেশ দিয়েছেন ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইব্যুনাল। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

ভারতে শনিবার( ১৪ নভেম্বর) থেকে শুরু হচ্ছে দিওয়ালী উৎসব। হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের আলো জ্বালানোর এই উৎসবে ভারতে ঐতিহ্যগতভাবেই লাখ লাখ পটকাবাজি পোড়ানো হয়। তবে এর কারণে বায়ুদূষণ পরিস্থিতি আরও খারাপ হচ্ছে বলে দাবি করে থাকেন অনেকেই। উত্তর ভারতে প্রতিবছর শীতকালে খড় ও শুকনো জমি পুড়িয়ে দেওয়ায় ওই এলাকার বাতাস তীব্র দূষণের শিকার হয়। সম্প্রতি এই দূষণের প্রভাব রাজধানী দিল্লি পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়েছে। যার কারণে বিশ্বের অন্যতম দূষিত শহরের তালিকায় স্থান পেয়েছে দিল্লি।

বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংখ্যক করোনা আক্রান্তের দেশ ভারত। দেশটির প্রায় ৮৫ লাখ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বাতাসের দূষণ বাড়লে কোভিড-১৯ এর মতো শ্বাসযন্ত্রের অসুস্থতার লক্ষণ তীব্র আকার নিয়ে উদ্বেগের কারণ হয়ে উঠতে পারে।

ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইব্যুনালের সোমবারের আদেশে বলা হয়েছে, পটকাবাজি জীবন ও স্বাস্থ্যের মারাত্মক ঝুঁকি তৈরি করেছে। বাতাস দূষণের ঝুঁকি বাড়তে থাকায় আগামী ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত সব শহরে পটকাবাজি পোড়ানো নিষিদ্ধ রাখার আদেশ দেন আদালত।

এদিকে আদালতের রায়ের আগেই রাজধানী দিল্লিসহ রাজস্থান, হরিয়ানা, মহারাষ্ট্র এবং পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে পটকাবাজি বিক্রি ও পোড়ানোর ওপর নিষেধাজ্ঞা কিংবা বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

0Shares