বিরোধী দলকে রুখতে জনসমাগমে ২ মাসের নিষেধাজ্ঞা দিল পাকিস্তান

প্রকাশিত: ৬:২৭ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৩, ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃঃ পাকিস্তানে বিরোধী দলের সমাবেশ আটকাতে ইসলামাবাদ প্রশাসন শুক্রবার থেকে পাঁচ বা তার বেশি লোকসমাগমের ওপর নিষেধাজ্ঞা বাড়িয়েছে। সকল ধরণের সমাবেশ আগামী ২ মাস বন্ধ রাখতে একটি প্রজ্ঞাপনও জারি করেছে দেশটির সরকার।

রেড জোন সহ যে কোনো গুরুত্বপূর্ণ সরকারী ভবন, ইসলামাবাদের সব সরকারী স্থানে পাঁচ জনের বেশি লোক জড় হতে পারবে না বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়। শুক্রবার ইসলামাবাদের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হামজা শফকাত এ প্রজ্ঞাপন জারি করেন।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, সমাজের একটি চক্র জনসাধারণের শান্তি ও প্রশান্তি বিঘ্নিত করার চেষ্টা করছে। বর্তমান আইনশৃঙ্খলা রক্ষা ও সুরক্ষার বিষয়টি মাথায় রেখে অবৈধ সভা সমাবেশ উপর নিষেধাজ্ঞা বাড়ানো হল। এ ছাড়া, আতশবাজি ক্রয়, বিক্রয় ও ব্যবহার, হ্যান্ডবিল বিতরণ, পাম্পলেট বিতরণ, দেয়াল লিখন, স্লোগান দেওয়া এবং দেয়ালে পোস্টার লাগানোও নিষিদ্ধ থাকবে দুই মাসের জন্য। একই সঙ্গে আগ্নেয়াস্ত্র বহন, প্রদর্শনেও নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।
একইভাবে, আপত্তিজনক ভাষণ দেওয়ার জন্য ক্যাসেট প্লেয়ার, সাউন্ড সিস্টেম, সিডি, ডিভিডি প্লেয়ার এবং অন্যান্য মাধ্যমের ব্যবহারের উপরেও নিষেধাজ্ঞা বাড়ানো হয়েছে।

মূলত প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান রবিবার লাহোরে হতে যাওয়া পাকিস্তানের বিরোধী দলের ১১-দলীয় জোট পাকিস্তান গণতান্ত্রিক আন্দোলন (পিডিএম) এর ষষ্ঠ পাওয়ার শো আটকাতেই এ সব পদক্ষেপ নিয়েছেন বলে মনেকরা হচ্ছে।

পিডিএম এর আগে ১৬ অক্টোবর থেকে পেশোয়ার, গুজরানওয়ালা, করাচি, কোয়েটা এবং মুলতানে এ ধরণের পাঁচটি সমাবেশ করেছে।

0Shares