জনআকাঙ্খার বিজয় হয়েছে- বাইডেন

dial dial

sylhet

প্রকাশিত: ৯:৫২ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৫, ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::আনুষ্ঠানিকভাবে ইলেকটোরাল কলেজ ভোটে যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর জো বাইডেন বলেছেন, জনগণের আকাঙ্খার বিজয় হয়েছে। সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে ইলেকটোরাল কলেজ ভোটে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন। এ ঘোষণার পর তিনি প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের দিকে ইঙ্গিত করে বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে গণতন্ত্রকে থামিয়ে রাখা হয়েছিল, পরীক্ষা চালানো হয়েছিল এবং হুমকিতে ফেলা হয়েছিল। কিন্তু এটা যে প্রানবন্ত, সত্য ও শক্তিশালী তা প্রমাণিত হয়েছে। ৩রা নভেম্বরে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর এখন পর্যন্ত ফল মেনে নিতে অস্বীকৃতি জানিয়ে যাচ্ছেন ট্রাম্প। তিনি বা তার পক্ষে নির্বাচনের ফলকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে একের পর এক মামলা করা হয়েছে। সেদিকে ইঙ্গিত করে জো বাইডেন বলেছেন, সময় এসেছে সেই অধ্যায়টাকে উল্টে দেয়ার। নিজের রাজ্য দিলাওয়ারে তিনি বক্তব্য রাখেন।
সেখানে তিনি সাধারণ নারী-পুরুষদের প্রশংসা করেন, যারা ধমক উপেক্ষা করেছেন। উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব গ্রহণের আগে ইলেকটোরাল কলেজ ভোটে নিজের বিজয় নিশ্চিত করতে হয় আনুষ্ঠানিকভাবে। ৩রা নভেম্বরের নির্বাচনে জো বাইডেন ৩০৬-২৩২ ইলেকটোরাল কলেজ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেন ট্রাম্পকে। ফলে ওইসব ইলেকটোরাল কলেজগুলো সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে ভোট দিয়ে জো বাইডেনকে যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে নিশ্চিত করেছে। এ নিয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কোনো মন্তব্য করেননি। তবে অল্প পরেই তিনি আইন মন্ত্রণালয় থেকে এটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বার বিদায় নিচ্ছেন বলে টুইট করেছেন। ট্রাম্প যখন নির্বাচনে ব্যাপক ভোট কারচুপির অভিযোগ করছেন, তখন তার বিপরীতে গিয়ে উইলিয়াম বার বলেছেন, তারা নির্বাচনে ভোট কারচুপির কোনো তথ্যপ্রমাণ পাননি। এ নিয়ে উইলিয়াম বার-এর সঙ্গে ট্রাম্পের দ্বন্দ্ব প্রকট হয়। গত সপ্তাহে এ নিয়ে হোয়াইট হাউজে বৈঠক করেন ট্রাম্প। সেখানে তিনি তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

0Shares