পাকিস্তান প্রকৃত ইস্যুকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করছে: কাশ্মীর পিপলস পার্টি

প্রকাশিত: ৬:২৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২০, ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃঃ ইউনাইটেড কাশ্মীর পিপলস ন্যাশনাল পার্টির (ইউকেপিএনপি) কেন্দ্রীয় মুখপাত্র নাসির আজিজ খান বেসরকারী এনজিও ইইউ ডিসিনফো ল্যাবের একটি প্রতিবেদনের নিন্দা করেছেন। তিনি দাবি করেছেন, এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে পাকিস্তান বাস্তব ইস্যু থেকে মানুষের দৃষ্টি ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করছে।

তিনি বলেন, এই ইইউ ডিসিনফো ল্যাব একটি বেসরকারী এনজিও। এর সঙ্গে ইউরোপীয় সংসদ, ইউরোপীয় কমিশন বা ইউরোপীয় ইউনিয়নের কোনো সম্পর্ক নেই। এই প্রতিবেদনের অনুসন্ধানগুলো অতিরঞ্জিতকরে পাকিস্তানে উপস্থাপন করা হয়েছে। এই প্রতিবেদনের তথ্যকে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্যবহারও করেছেন। তিনি পাকিস্তান-অধিকৃত কাশ্মীরের (পিওকে) কর্মী ডাঃ শবির চৌধুরীর সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে দাবি করেছিলেন যে তারা একটি বিরাট কেলেঙ্কারির রহস্য উন্মচন করেছেন।

খান আরও উল্লেখ করেছেন, পাকিস্তান বিভিন্ন সময়ে এমন তথ্য উপস্থাপন করেছে যার বাস্তবের সঙ্গে কোনো সংযোগ নেই। বরং এগুলো মূল্যবৃদ্ধি, সন্ত্রাসবাদ ও বেকারত্বের মতো মূল্যবান বিষয়গুলি থেকে জনগণের দৃষ্টি ভিন্ন খাতে নিতে জোর দেয়। এই প্রতিবেদনে কোনো বিশ্বাসযোগ্য তথ্য নেই বলে জোর অভিযোগ করেছেন ইউকেপিএনপি-র এই মুখপাত্র।
তিনি বলেন, পাকিস্তান তাদের বর্তমান পরিস্থিতি ও অসংখ্য বেআইনী কর্মকাণ্ডের সাফাই দিতে তার দলকে এই রিপোর্টের মাধ্যমে টার্গেট করেছে। এটি একটি ওপেন সিক্রেট যে, পাকিস্তান প্রশাসন দেশের মিডিয়া এবং প্রেসগুলি কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করে। এখন তাদের পরবর্তী পদক্ষেপ হল যারা আন্তর্জাতিক প্ল্যাটফর্মে পাকিস্তানের অন্যায় কাজের তথ্য তুলে ধরছে তাদেরকে অসম্মানিত করা।

তিনি উল্লেখ করেন, পাকিস্তানের সংবিধানে পিওকে এবং গিলগিট-বালতিস্তান এ দেশের ভূখণ্ডে নেই। এ ছাড়া তিনি এই অঞ্চলে মৌলিক অধিকার এবং আইনের শাসনের দাবি তোলা বেশ কয়েক জন ব্যক্তির কঠোর শাস্তির কথাও উল্লেখ করেছেন। ভারতকে জাতিসংঘ থেকে বের করে দিতে বারবার চেষ্টা করেছে পাকিস্তান। তবে একটি বেসরকারী এনজিওর ‘ভিত্তিহীন’ রিপোর্ট বড় পার্থক্য করতে পারে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি। এ ছাড়া তিনি, পাকিস্তানি প্রশাসনের অবৈধ কার্যক্রম উত্থাপন অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন।

এ মাসের শুরুতে ইইউ ডিসিনফো ল্যাবের একটি প্রতিবেদনের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ইউকেপিএনপি। তাদের দাবি এনজিওটি পাকিস্তানের অসংখ্য অবৈধ কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে আন্দোলন দমন করতে পাকিস্তানকে সমর্থন করে। এবং প্রতিবেশি দেশগুলোর বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালায়। এ ছাড়া ইইউ ডিসিনফো ল্যাবকে ভারত ও অন্যান্য আঞ্চলিক দেশের বিরুদ্ধে পক্ষপাতমূলক, কাল্পনিক এবং মনগড়া প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য অভিযুক্ত করেছে ইউকেপিএনপি।

0Shares