জার্মানির বিমানবন্দরে বৃটিশ যাত্রীদের ভোগান্তি

প্রকাশিত: ৪:৩২ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২১, ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃঃ নতুন ধরনের করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কারণে বৃটেনে কড়াকড়ি আরোপের পর জার্মানির এক বিমানবন্দরে দুর্ভোগে পড়েন বেশ কিছু বৃটিশ বিমানযাত্রী। তারা রোববার রাতে জার্মানির হ্যানোভারে পৌঁছেন। এ সময় তাদের করোনা পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষার ফল পাওয়ার জন্য তাদের অপেক্ষা করতে হয়। এ সময় ক্যাম্পবেড ব্যবহার করে তাদেরকে বিমানবন্দরেই ঘুমাতে বাধ্য করা হয়। এমন পরিস্থিতিতে পড়েন ৬৩ জন যাত্রী। বৃটেনের সঙ্গে যোগাযোগ ইউরোপ কার্যত বন্ধ করে দেয়ার পর এসব যাত্রীকে একই রুমে অবস্থান করতে বাধ্য করা হয়। রোববার রাতে সেখানে পৌঁছা বৃটিশ যাত্রীদের স্ক্রিনিং করতে দেখা যায় নার্সদের।

যাত্রীদের সোমবার সকাল পর্যন্ত ওই রুমেই অবস্থান করতে বলা হয়। এ সময় সেখানে যাত্রীদের অনেককে দেখা যায় ক্যাম্পবেড ব্যবহার করে তার ওপর ঘুমাচ্ছেন। যে যেখানে পেরেছেন সেখানেই শুয়ে দু’চোখ বন্ধ করেছেন। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডেইলি মেইল। যাত্রীদের একজন ম্যানুয়েলা থোমিস বলেছেন, আমাদেরকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে সেখানে আটকে রাখা হয়েছিল। অন্যরা বৃটেন ফিরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিচ্ছিল। জার্মান পত্রিকা বিল্ড প্রকাশিত এক ভিডিওতে তাকে চিৎকার করতে দেখা যায়- ‘দয়া করে আমাদের ছেড়ে দিন!’ এতে দেখা যায়, আটকে পড়া যাত্রীদের মধ্যে রয়েছেন বৃটিশ ও জার্মান নাগরিক। তার মধ্যে একটি ৯ মাস বয়সী শিশুও আছে। একজন যাত্রী এ অবস্থাকে ‘স্ক্যান্ডাল’ আখ্যায়িত করেন। অন্যরা এ নিয়ে আইনজীবির সঙ্গে কথা বলতে চান। একই রকম চিত্র দেখা গেছে বার্লিনে। সেখানেও আটকা পড়েছিলেন ৭৭ জন যাত্রী। তাদেরকেও অপেক্ষা করতে বলা হয় সোমবার সকাল পর্যন্ত।

0Shares