কুলাউড়ায় আচরণবিধি ভঙ্গ করায় ১১ প্রার্থীকে অর্থদন্ড!

dial dial

sylhet

প্রকাশিত: ৭:৫৪ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৪, ২০২১

ডায়ালসিলেট ডেস্ক::

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া পৌরসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বি ১১ প্রার্থীকে নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ করায় ভ্রাম্যমান আদালত জরিমানা করা হয়েছে। অর্থদণ্ড প্রাপ্তদের মধ্যে ২ জন মেয়র প্রার্থী ও ৯ জন কাউন্সিলর প্রার্থী রয়েছেন।

 

রোববার (০৩ জানুয়ারি) রাত সাড়ে সাতটায় মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তানভীর হোসেন এর নেতৃত্বে এ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে জরিমানা আদায় করা হয়।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, রোববার রাতে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মো. আহসান ইকবাল ও অফিস সহকারী কাজী মো. আনোয়ার হোসেনসহ কুলাউড়া থানা পুলিশের সহযোগিতায় পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তানভীর হোসেন।

অভিযানকালে একই গাড়িতে একাধিক মাইক ব্যবহার, বিভিন্ন স্থানে নির্দিষ্ট সাইজের চেয়ে অতিরিক্ত সাইজের পোস্টার ব্যবহার ও দোকানপাটসহ বিভিন্নস্থানে স্টিকার লাগানোর অপরাধে ১১জন প্রার্থীকে মোট ৪৩ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করে জরিমানা আদায় করা হয়।

যাদের বিরুদ্ধে জরিমানা করা হয়েছে তাঁরা হলেন- মেয়র প্রার্থী সিপার উদ্দিন আহমদ (নৌকা) ৮ হাজার টাকা ও স্বতন্ত্র প্রার্থী শাজান মিয়া (জগ) ৮ হাজার টাকা, ১নং সংরক্ষিত আসনের মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী সুফিয়া বেগম চৌধুরী ৩ হাজার টাকা, ২নং সংরক্ষিত আসনের মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী রাজিয়া সুলতানা চৌধুরী ৩ হাজার টাকা ও রেহানা পারভিন ২ হাজার টাকা, ৩নং সংরক্ষিত আসনের মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী নার্গিস আক্তার ২ হাজার টাকা ও সুমাইয়া রহমান ৩ হাজার টাকা, ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী কামাল আহমদ ৩ হাজার টাকা, ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী জহির খান ৩ হাজার টাকা ও হারুনুর রশীদ ভূঁইয়া ৫ হাজার টাকা এবং ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী জহিরুল ইসলাম খান ৩ হাজার টাকাসহ মোট ১১জন প্রার্থীকে ৪৩ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করা হয়।

কুলাউড়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মো. আহসান ইকবাল বলেন, মনোনয়ন জমাকালীন সময় ও প্রতীক বরাদ্দের দিন সকল প্রার্থীকে আচরণবিধি মেনে চলার বিষয়ে কঠোরভাবে সতর্ক করা হয়েছিল। কিন্তু অনেক প্রার্থী আচরণবিধি ভঙ্গ করেছেন। তাই ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। নির্বাচনের পূর্ব মুহূর্ত পর্যন্ত এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

0Shares