জাঙ্গাইল গ্রামের গরীব ভূমিহীনদের বসতঘর রক্ষার দাবিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি

dial dial

sylhet

প্রকাশিত: ১০:২০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৭, ২০২১

ডায়ালসিলেট ডেস্ক::সিলেট সদর উপজেলার জালালাবাদ থানার ৮নং কান্দিগাও ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের জাঙ্গাইল এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে তাদের পুনর্বাসন না করে বসত ঘর উচ্ছেদ না করার দাবিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে আব্দুল মোমেন বরাবরে একটি স্মারকলিপি প্রদান করেছেন। ২০২০ সালের ১৫ ডিসেম্বর এলাবাসী এই স্মারকলিপি দাখিল করেন। এর আগেও একই সনে ২২ নভেম্বর পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সিলেটের জেলা প্রশাসক বরাবরে পৃথক স্মারকলিপি প্রদান করেন। এলাকাবাসীর পক্ষে বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. নাজিম উদ্দিন, আফজাল হোসেন, সানোয়ার আজিম, আক্তার হোসেন, মেরাজ উদ্দিন, মো. আতাউর রহমান, মো. আব্দুছ ছাত্তার, মো. সিরাম উদ্দিন, মো. কামরুল ইসলাম, মো. আব্দুল খালিক এই স্মারকলিপি প্রদান করেন। স্মারকলিপিতে তারা উল্লেখ্য করেন, সিলেট সদর উপজেলার ৮নং কান্দিগাও ইউনিয়নের জাঙ্গাইল গ্রামের সুরমা নদীর উত্তর পাড়ে কসকালিকা মৌজার জেল এল নং ৪৮, বর্তমান জে. এল. ৩১, এস. এ. জরিপী দাগ- ৭২৭, বর্তমান বিএস জরিপী দাগ ১০৯৪ ভূমিতে অসহায় মৎস্যজীবী গরীব ভূমিহীন পরিবারের সদস্যরা জন্মলগ্ন থেকে এখানে বসবাস করে আসছেন। তারা ১৯৮৭-৮৮ সাল হতে বন্দোবস্ত পেয়ে ১৯৮৮ সালেই খাজনা প্রদান করেন। এরপর আর কোন খাজনা নেওয়া হয়নি। বার বার ভূমি অফিসে যোগাযোগ করে খাজনা পরিশোধের চেষ্টা করলেও সংশ্লিষ্ট অফিস কর্মকর্তারা তা গ্রহণ না করায় আমরা খাজনা পরিশোধে ব্যর্থ হই। এরপর থেকে আমরা অসহায় ভূমিহীন মৎস্যজীবীরা আমাদের পূর্বপুরুষদের এই ভূমিতে চাষাবাদ সহ গৃহ নির্মাণ করে জীবন-যাপন করে আসছি। পরে আমরা জানতি পারি, এই ভূমিতে সরকার ‘বাহাদুর গৃহায়ন প্রকল্প’ বাস্তবায়ন করার জন্য আমরা অসহায় ভূমিহীন মৎস্যজীবী ও আমাদের পরিবারকে উচ্ছেদ করা হচ্ছে। এই ভূমিতে বর্ষাকালে আমরা পানিথাকানালীন অবস্থায় বসবাস করে আসছি। ভূমিহীনদের সামাজিক নিরাপত্তা ও বসবাসের নিশ্চয়তার নিমিত্তে সরকারের নতুন গৃহায়ন প্রকল্প স্থগিতের জন্য প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও সংশ্লিস্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ভূমিহীন অসহায় মৎস্যজীবীরা। বিজ্ঞপ্তি

0Shares