কবি যখন জ্বলে ওঠেন

dial dial

sylhet

প্রকাশিত: ২:১৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২১, ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল হিল। ডানে-বামে বসা অথবা দাঁড়ানো নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও তার পরিবার এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট কমালা হ্যারিস ও তার পরিবার। বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিধর এই দু’নেতা এবং সমবেত অতিথিদের সামনে উপস্থিত মাত্র ২২ বছর বয়সী এক কবি। প্রেসিডেন্ট, ভাইস প্রেসিডেন্টের শপথের আনুষ্ঠানিকতার ভিতর আকস্মিক জ্বলে উঠলেন তিনি। শোনালেন নিজের লেখা কবিতায় ‘ঐক্য আর ঐক্যবদ্ধতা’র কথা। তার শব্দ চয়ন, আবৃতির দ্যুতি যেন কয়েক মুহূর্তের জন্য মূল অনুষ্ঠান থেকে দৃষ্টি কেড়ে নিয়েছিল উপস্থিত অতিথি ও বিশ্ববাসীর। আকস্মিক তার কণ্ঠে যে দ্যুতি, যে প্রত্যয় উচ্চারণ হলো তা অবাক করে দেয় বাইডেন, কমালা হ্যারিস, সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন, জর্জ ডব্লিউ বুশ, বারাক ওবামা সহ তাবৎ দুনিয়াকে। এর মধ্য দিয়েই আরেক নতুন ইতিহাস নির্মিত হলো এবারের প্রেসিডেন্টের শপথ অনুষ্ঠানে।

এ অনুষ্ঠানে যাবৎকাল যেসব কবি যোগ দিয়ে পারফরম করেছেন তার মধ্যে আমান্ডা গোরম্যান সবার চেয়ে ছোট। তিনি লিখেছেন কবিতা ‘দ্য হিল উই ক্লাইম্ব’। তার ৫ মিনিটের কবিতায় অবাক, স্তব্ধ চারদিক। পিনপতন নীরবতায় যেন তার কবিতার প্রতিটি শব্দ সবার মনে গেঁথে যাচ্ছিল বর্শার মতো।

তিনি উচ্চারণ করলেন-

যখন দিন আসে, আমরা নিজেদের কাছে প্রশ্ন করি
এই অন্তহীন অন্ধকারে কোথায় পাবো আলো?

এখানে তিনি ৬ই জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটলে ভয়াবহ নৃশংসতার দিকে ইঙ্গিত করেছেন। আবৃতি করেছেন-

সেই শক্তিকে দেখেছি আমরা, যা
ভাগাভাগি করার চেয়ে ছিন্নভিন্ন করে দেবে আমার দেশকে
গণতন্ত্র বিলম্বিত হলে আমার দেশকে ধ্বংস করে দেবে।

বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের উস্কানিতে তার সমর্থকরা ক্যাপিটল হিলে যে নৈরাজ্য, তা-বলীলা চালিয়েছে সেসব নিজের কবিতায় এভাবে তুলে ধরেছেন আমান্ডা। তার কণ্ঠ ছিল জোরালো। তেজে বলিয়ান। ট্রাম্প সমর্থকরা গণতন্ত্রকে ধ্বংস করে ক্যাপিটল হিল দখলের চেষ্টা করেছিলেন। তা নিয়ে আমান্ডার দৃপ্ত উচ্চারণ-

সেই প্রচেষ্টায় তারা সফল হয়েছিল প্রায়
কিন্তু গণতন্ত্রও পর্যায়ক্রমিকভাবে বিলম্বিত হতে পারে
তাই বলে গণতন্ত্রকে স্থায়ীভাবে পরাজিত করা যায় না কখনো।

নিজের এই কবিতায় আমান্ডা নিজেকে পরিচয় দেন একজন চর্মসার কৃষ্ণাঙ্গ মেয়ে হিসেবে। তিনি কবিতায় বলেন-

দাসদের উত্তরসূরি আমি এক চর্মসার কৃষ্ণাঙ্গ মেয়ে
আমার বড় করেছেন এক সিঙ্গেল মা-
যার স্বপ্ন একদিন প্রেসিডেন্ট হবেন
একদিন কেউ তার আবৃত্তি শুনবে, তার খোঁজে।

0Shares