সোনার হরিণ’ খ্যাত করোনার টিকা দেশে পৌঁছেছে

dial dial

sylhet

প্রকাশিত: ১২:২৭ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২১, ২০২১

ডায়ালসিলেট ডেস্ক::

বৈশ্বয়িক মহামারি করোনাভাইরাসের তাণ্ডব থেকে রক্ষা পেতে টিকা নামের সোনার হরিণ অবশেষে দেশে এসে পৌঁছেছে। বাংলাদেশকে ভারত সরকারের উপহার দেওয়া করোনাভাইরাসের ১৭ লাখ ৯৯,২৬২ ডোজ টিকা ১৬৭টি বক্সে এয়ার ইন্ডিয়ার বিশেষ ফ্লাইটে করে ঢাকায় পৌঁছায়।

আজ বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌছায় করোনার ভ্যাকসিনের প্রথম চালান।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, দুপুরে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় ভ্যাকসিন হস্তান্তর করা হবে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের কাছে ভারতের রাষ্ট্রদূত বিক্রম দোরাইস্বামীর এসব টিকা তুলে দেওয়ার কথা। বিমানবন্দরের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানান, টিকাগুলো বিমানবন্দর থেকে সরাসরি তেজগাঁওয়ে ইপিআইয়ের স্টোরেজে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। সেখানে সংরক্ষণ করা হবে।

বাংলাদেশ সরকারিভাবেও ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে আরও ৩ কোটি ডোজ টিকা কিনছে, যার প্রথম চালানে ৫০ লাখ ডোজ টিকা ২৫ জানুয়ারির মধ্যে পৌঁছাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

প্রথম দফায় ২০ থেকে ২৫ জনের ওপর পরীক্ষামূলক প্রয়োগের পর, ফেব্রুয়ারিতেই করোনা টিকা প্রয়োগ শুরু হবে। প্রথম মাসেই দেওয়া হবে ৬০ লাখ ডোজ।

সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে- ফ্রেব্রুয়ারি মাসে ৬০ লাখ মানুষ পাবেন করোনার টিকা। যা সারাদেশে একযোগে দেয়া হবে সরকারি হাসপাতালগুলোতে।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার কথা বিবেচনায় রেখে সরকারি হাসপাতালের বাইরে কোন কেন্দ্র থাকবে না। টিকা পেতে আবেদন করতে হবে সুরক্ষা অ্যাপসের মাধ্যমে। ‘সুরক্ষা’ নামের এই অ্যাপসটি ২৫ জানুয়ারি স্বাস্থ্য বিভাগের কাছে হস্তান্তর করবে আইসিটি বিভাগ।

১৮ বছরের নিচে দেশের ৩৭ ভাগ জনগোষ্ঠীসহ ৭ কোটি মানুষ ভ্যাকসিন আওতার বাইরে থাকবে।

0Shares