ওসমানীনগরে ট্রাকের ভেতরে মিলল চালকের লাশ

dial dial

sylhet

প্রকাশিত: ৯:৫৪ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৪, ২০২১

ডায়ালসিলেট ::

লেটের ওসমানীনগরে এক ট্রাকচালকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার (২৪ মার্চ) সকাল ১১টার দিকে একটি মালবাহী ট্রাকের ভেতর থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহতের নাম মুজিবুর রহমান (৪০)। তিনি কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার আলীচর গ্রামের মৃত তোতা মিয়ার ছেলে।

জানা যায়, বুধবার সকালে উপজেলার দক্ষিণ গোয়ালাবাজারে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে শেরপুরমুখী একটি পাথরবাহী ট্রাক ঢাকা মেট্রো-ট (২২-৫২১১) দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে রাস্তার পার্শ্ববর্তী দোকানের মালিক ছিদ্দিকুর রহমান ট্রাকটি সরানোর জন্য চালককে ডাকাডাকি করেও সাড়া পাননি। পরে তিনি ট্রাকের ড্রাইভিং সিটের পাশের জানালা দিকে তাকিয়ে ভেতরে একটি রক্তাক্ত লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। খবর পেয়ে ওসমানীনগর থানার পুলিশ ও সিআইডি’র ক্রাইম সিন ম্যানেজমেন্ট টিমের সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করেন।

ছিদ্দিকুর রহমান বলেন, ‘সকাল ৯টার দিকে দোকান খোলার সময় আমার দোকানের সামনে ট্রাকটি দাঁড়িয়ে থাকতে দেখি। কিছুক্ষণ অপেক্ষা করার পর ট্রাকটি দোকানের সামনে থেকে সরানোর জন্য ড্রাইভারকে ডাকাডাকি করি। কিন্তু ডেকেও সাড়া না পেয়ে ট্রাকের ভেতরে চালক ঘুমিয়ে আছেন ভেবে ট্রাকের ড্রাইভিং সিটের পাশের জানালা দিয়ে তাকালে ভেতরে একটি রক্তাক্ত লাশ পড়ে থাকতে দেখি। পরে আশেপাশের লোকজনকে ডেকে পুলিশে খবর দেই।’

নিহত ট্রাকচালক মুজিবুরের ছোট ভাই স্বপন মিয়া জানান, তিনি ঢাকা থেকে মালামাল নিয়ে সিলেটে আসছিলেন। শায়েস্তাগঞ্জে এসে তিনি তার ভাই মুজিবুর রহমান নিহত হয়েছেন বলে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন।

তিনি বলেন, ‘আমার বড় ভাই মুজিবুর রহমান গতকাল (মঙ্গলবার) সিলেটে মামামাল নিয়ে এসে আজ (বুধবার) পাথর নিয়ে ঢাকায় যাচ্ছিলেন। কী করে এ ঘটনাটি ঘটল বুঝতে পারছি না। আমার ভাইয়ের মুখ, গলাসহ শরীরের একাধিক স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ভাইয়ের সঙ্গে থাকা হেলপারকে (চালকের সহযোগী) ঘটনাস্থলে দেখতে পাইনি। সে হয়তো কিছু বলতে পারবে।’

ঘটনাস্থলে থাকা ওসমানীনগর থানার এসআই জাহেদ আহমদ বলেন, ‘নিহত ব্যক্তি ওই ট্রাকের চালক। ভোলাগঞ্জ থেকে পাথর নিয়ে ট্রাকটি ঢাকার উদ্দেশে যাচ্ছিল। কী কারণে এ ঘটনাটি ঘটেছে তা থানার পুলিশের পাশাপাশি সিআইডি’র ক্রাইম সিন ম্যানেজমেন্ট টিমের সদস্যরা খতিয়ে দেখছেন। ঘটনাস্থল থেকে রক্তমাখা একটি হুইল রেঞ্চ জব্দ করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে এটি চালককে খুন করতে ব্যবহার করা হয়েছে।’

 

0Shares