আওয়ামী লীগের গণতন্ত্রের সঙ্গে কোন সম্পর্ক নেই: ফখরুল

dial dial

sylhet

প্রকাশিত: ৫:৩১ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৯, ২০২১

ডায়ালসিলেট ডেস্ক::বর্তমান সরকার ও আওয়ামী লীগের গণতন্ত্রের সঙ্গে কোনো সম্পর্ক নেই দাবি করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আওয়ামী লীগ এখন সম্পূর্ণ গণবিচ্ছিন্ন একটা দলে পরিণত হয়েছে। রাজনৈতিকভাবে আওয়ামী লীগ দেউলিয়া হেয়ে গেছে বলেই তাদের রাষ্ট্রযন্ত্রের ওপরে ভর করে রাজনীতি করতে হচ্ছে। সোমবার বিকেলে এক ভার্চ্যুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।
মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ এখন সম্পূর্ণ গণবিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার কারণে তাদের রাজনীতি করতে হচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপর নির্ভর করে। তাদের রাজনীতি করতে হচ্ছে বিচার বিভাগকে দলীয়করণ করে। তাদের রাজনীতি করতে হচ্ছে নির্বাচন কমিশনকে ব্যবহার করে। সেই ক্ষেত্রে ওবায়দুল কাদের সাহেবদের আওয়ামী লীগকে আর গণতান্ত্রিক দল বলার কোনো অধিকার নেই। তারা যেটা বলছেন, সেটা ভূতের মুখে রাম রাম।
ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাহেব প্রতিদিন একা একা কথা বলেন। তিনি বোঝাতে চান যে গণতন্ত্রের একমাত্র ধারক ও বাহক তারাই।

১৮ এপ্রিল বলেছেন, ‘আমাদের নিজেদের দলে গণতন্ত্র নেই, আমরা আবার কিসের গণতন্ত্র চাই’। বিষয় সেটা না বিষয়টা হলো আপনারা গণতন্ত্রকে কোন জায়গায় নিয়ে গেছেন। গত ১০ বছর অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে গণতন্ত্রকে ধ্বংস করছেন।
ওবায়দুল কাদেরকে তিনি বলেন, আপনারা ২০১৪ সালের নির্বাচন করেছেন সম্পূর্ণ একতরফাভাবে। কোনো বিরোধীদল বিএনপি-গণফোরামসহ কেউ সেই নির্বাচনে অংশ নেয়নি, তত্ত্বাবধায়ক সরকার বাতিল করার কারণে। আমরা ওই নির্বাচন বর্জন করেছিলাম। কারণ বাংলাদেশের সংবিধান লঙ্ঘন করে সেই নির্বাচন করা হয়েছিল। জনগণের ভোটের অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছিল। ১৫৪ জনকে বিনাভোটে নির্বাচিত করে তারা সরকার গঠন করেছিল। একইভাবে ২০১৮ সালে নির্বাচনের আগের রাতে ৩০০ আসনেই রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। সুতরাং আপনাদের আর নিজেদের গণতান্ত্রিক বলার কোনো অধিকার নেই।

0Shares