সিলেট ওসমানী মেডিকেলে ভারত ফেরত ৬ বাংলাদেশী

প্রকাশিত: ৩:৫৯ অপরাহ্ণ, মে ৪, ২০২১

করোনাভাইরাসের কারণে বিপর্যস্ত পুরো ভারত। যার জন্য বাংলাদেশ সরকার ভারত ফেরতদের ব্যাপারে সর্তকতা জারি করেছে। সোমবার (৩ মে) ভারত ফেরত ৬ বাংলাদেশী নাগরিককে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৪ মে) বিষয়টি নিশ্চিত করেন সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায়। তিনি বলেন, সরকারি নির্দেশনা পাওয়ার পর ভারত ফেরত ৬জনকে হাসপাতালের কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। ৬ জনের স্বাস্থ্য পরীক্ষা মঙ্গলবার অথবা আগামীকাল বুধবার তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার পর পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করা হবে।

জানা যায়, সিলেটের ছয়টি স্থলবন্দরে সতর্ক থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। ভারত থেকে আটকে পড়া কোনো বাংলাদেশি নাগরিক স্থল বন্দর দিয়ে ফিরলে তাকে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। ২২ এপ্রিল এক আন্তঃমন্ত্রণালয়ের বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। গত এক বছরে সিলেটের গোয়াইনঘাটের তামাবিল স্থলবন্দর হয়ে সিলেটে আসেন চার হাজার ২১ জন। বিয়ানীবাজারের সুতারকান্দি স্থলবন্দর দিয়ে আসেন এক হাজার ২০ জন। সিলেটের জকিগঞ্জ স্থলবন্দর দিয়ে আসেন এক হাজার ১৬০ জন। হবিগঞ্জের চুনারুঘাটের বাল্লা স্থলবন্দর আসেন ২২০ জন। মৌলভীবাজারের জুড়ীর ফুলতলা (বটুনী) স্থলবন্দর দিয়ে ১৮৯ জন। কুলাউড়া চাতলা স্থলবন্দর দিয়ে আসেন ৯৮০ জন।

সিলেট বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ নূরে আলম শামীম বলেন, সিলেট বিভাগের স্থলবন্দর দিয়ে কেউ ভারত থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ করলে তাকে অবশ্যই সরকারের নির্দেশনা অনুসারে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। এজন্য স্থলবন্দরগুলো সতর্ক থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

0Shares