শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে সিলেট জেলা যুবলীগের মিলাদ, দোয়া

প্রকাশিত: ৭:৪৪ অপরাহ্ণ, মে ১৭, ২০২১

ডায়ালসিলেট ডেস্ক ::

কেন্দ্রীয় কর্মসুচির অংশ হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে উপলক্ষে সিলেট জেলা যুবলীগের মিলাদ, দোয়া ও শিরণী বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার(১৭ মে) বাদ যোহর হযরত শাহজাল( র:) মাজার মসজিদে দোয়া, মিলাদ ও দুস্থদের মাঝে শিরণী বিতরণ করা হয়।

এসময় জেলা যুবলীগের  সভাপতি শামীম আহমদ ভিপি বলেন, সামরিক শাসকের রক্তচক্ষু ও নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ১৯৮১ সালের ১৭ মে প্রিয় স্বদেশভূমিতে প্রত্যাবর্তন করেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। সেদিন রাজধানী ঢাকা মিছিলের নগরীতে পরিণত হয়। সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত ঢাকা শহর মিছিল আর স্লোগানে প্রকম্পিত হয়। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া আর প্রচণ্ড ঝড়-বৃষ্টি লাখো মানুষের মিছিলকে গতিরোধ করতে পারেনি সেদিন। আওয়ামীলীগে সভানেত্রী হিসেবে দীর্ঘ ১৫ বছর নানা লড়াই-আন্দোলন-সংগ্রামের মধ্য দিয়ে ১৯৯৬ সালে সরকার গঠন করে এবং দেশ গঠনে এগিয়ে যান তিনি। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ আজ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হয়েছে। তিনি আগামী দিনে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থেকে দেশের বিরুদ্ধে সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করার জন্য সিলেট জেলা যুবলীগের নেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানান।

সাধারণ সম্পাদক মো. শামীম আহমদ বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট নরঘাতকরা ইতিহাসের নৃশংসতম হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করে। এসময় বিদেশে থাকায় আল্লাহর অশেষ রহমতে বেঁচে যান বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা। আজকের এই দিনে বঙ্গবন্ধুর কন্যা বাংলার মাটিতে পা রাখেন। তাঁর নেতৃত্বে আজ বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। আমাদের সবার উচিত সরকারের উন্নয়ন কাজে সহযোগীতায় এগিয়ে আসা।

এসময় সিলেট জেলা যুবলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ছাড়াও জেলা যুবলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এসময় বঙ্গবন্ধুকন্য শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানাসহ পরিবারের সদস্যদের দীর্ঘায়ু ও ১৫ ই আগষ্টে নিহত সকলে আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়।।

0Shares