শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে সিলেট মহানগর যুবলীগের মিলাদ ও দোয়া মাহফিল

প্রকাশিত: ৮:০১ অপরাহ্ণ, মে ১৭, ২০২১

ডায়ালসিলেট ডেস্ক ::

রাষ্ট্র নায়ক মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে  সিলেট মহানগর যুবলীগের উদ্যোগে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১৭মে) বাদ যোহর নগরীর বন্দরবাজার কালেক্টরেট জামে মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
মহানগর যুবলীগের সভাপতি আলম খান মুক্তি বলেন, রাষ্ট্রনায়ক মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে ১৯৮১ সালের ১৭ মে দীর্ঘ নির্বাসন শেষে তিনি বাংলার মাটিতে ফিরে আসেন এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব গ্রহণ করার পর থেকে দীর্ঘ ২১টি বছর এদেশের মানুষের অধিকার আাদয়ের আন্দোলন সংগ্রামের মধ্যদিয়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যার বিচারের রায় কার্যকর ও স্বাধীনতা বিরোধী রাজাকার,আলবদরের রায় কার্যকর নিজেদের টাকায় পদ্মায় সেতু নির্মাণ ও পালিয়ে আসা ১০ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়ে মানবতার মা উপাধি পান। তিনি বলেন, রাষ্ট্র নায়ক শেখ হাসিনা হচ্ছেন বদলে যাওয়া বাংলাদেশের অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রার প্রতীক। সিলেট মহানগর যুবলীগ রাষ্ট্র নায়ক শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে সর্বদা কাজ করে যাচ্ছে।
এসময় সাধারণ সম্পাদক মুশফিক জায়গীদার বলেন, ‘আল্লাহর অশেষ রহমতে বিদেশে থাকার কারণে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর হত্যাকাণ্ডের সময় সৌভাগ্যক্রমে জননেত্রী শেখ হাসিনা ও তার ছোট বোন শেখ রেহেনা প্রাণে বেঁচে যান।

তিনি আরও বলেন রাষ্ট্র নায়ক শেখ হাসিনার প্রতি বাংলার জনগণের অকুণ্ঠ সমর্থন ও অসীম আস্থার কারণে তিনি বার বার দেশের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন এবং আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বিস্ময়কর অবদান রেখে চলছেন।’ দেশকে এগিয়ে নিতে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যুবলীগসহ সবাইকে ঐক্যবোধভাবে কাজ করার আহবান জানান।

দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন, আবিদুর রহমান শিপলু, কবির আহমদ শাহজান, আব্দুর রব সায়েম, হুসাইন আহমদ বাবু, সুলতান মাহমুদ সাজু, রঞ্জন দে, আজাদুর রহমান চঞ্চল, রুপম আহমদ, হুসাইন আহমদ, সেবুল আহমদ সাগর, উবায়েত বাসিত সুমন, তোফায়েল আহমদ তারেক, রুহুল আমিন, আজাদ উদ্দিন,শাকারিয়া হোসেন শাকির, ইয়াসিন আহমদ, আব্দুল হাফিজ নুর আলী,আবীর হাসান রানা, আল-মুমিন, টিটু আহমদ, জাকির আহমদ, আমিনুল ইসলাম আমিন, হাফিজুর রহমান, কবির আহমদ, ইসলা উদ্দিন বাবলু, ইশতিয়াক আমহদ পিন্টু, বাপ্পি দাশ, জাবেদ আহমদ,লন্টুগুপ,তারেক আহমদ  চৌধুরী,শরীফ আহমদ, অমিত জিৎ প্রমুখ।
পরে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার ও শেখ রেহানার সু-স্বাস্থ্য,দীর্ঘায়ু কামনা, ১৯৭৫ সালে ১৫ আগস্টে সকল শহিদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে ও করোনা মহামারি থেকে দেশ ও জাতিকে রক্ষার জন্য বিশেষ মোনাজাত করা হয়।
0Shares