নেপালে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে প্রথম মৃত্যু

dial dial

sylhet

প্রকাশিত: ৮:৪৭ অপরাহ্ণ, জুন ৪, ২০২১

ডায়ালসিলেট ডেস্ক : ব্ল্যাক ফাঙ্গাস নামে পরিচিত মিউকরমাইকোসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে নেপালে প্রথম কোনও ব্যক্তির মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। নেপালের সেতি প্রাদেশিক হাসপাতালের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

মৃত ব্যক্তি একজন ৬৫ বছর বয়সী পুরুষ। টেম্পোরাল লোব এনসেফালাইটিস ধরার পড়ার পর তাকে হাসপাতালের ইনটেন্সিভ কেয়ার ইউনিটে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল।

সেতি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, ‘ন্যাসাল সোয়াবে ছত্রাকের হাইফা এবং বায়োপসি পরীক্ষায় নাক ও ঠোঁটে মিউকর পাওয়ার পর তিনি ৩ জুন (বৃহস্পতিবার) মারা যান।’ তবে ওই ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন না বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র কৃষ্ণ প্রসাদ পৌদেল বলেছেন, নেপালে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে অন্তত ১০ জনের আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

মিউকরমাইকোসিস বা ব্ল্যাক ফাঙ্গাস প্রাণঘাতী এক রোগ। আক্রান্ত রোগীকে বাঁচাতে অনেক সময় রোগীর চোখ, নাক বা চোয়াল অপসারণ করতে বাধ্য হন চিকিৎসকরা, যেন রোগটি মস্তিষ্কে না পৌঁছায়। এই রোগে মৃত্যুহার ৫০ শতাংশ।

ভারতে হাজার হাজার মানুষ ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত হচ্ছেন। দিল্লিতে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসকে মহামারি ঘোষণা করা হয়েছে। ভারতে লাখ লাখ করোনা রোগীদের সুস্থ করতে স্টেরয়েড প্রয়োগের কারণে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

নেপালে এপ্রিল থেকে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা অনেক বেড়ে গেছে। মে মাসের মাঝামাঝি সময়ে দৈনিক আক্রান্তের হার ছিল ৯ হাজারের বেশি। বর্তমানে সংক্রমণ কিছুটা কমে এলেও হাসপাতালগুলোতে রোগীদের চাপ অনেক বেশি। দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত ৭ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে ভ্যাকসিন চেয়ে আবেদন করেছেন।

0Shares