জনগণই দেখোক কার কতটুকু জনপ্রিয়তা আছে : জাতীয়পার্টি মনোনীত প্রার্থী আতিক

প্রকাশিত: ৯:৫৭ অপরাহ্ণ, জুন ২৭, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেট ৩ আসনের উপনির্বাচনে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী আতিকুর রহমান আতিকের সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার (২৭ জুন) বিকাল ৩টার দিকে নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সিলেটে কর্মরত প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন তিনি।

এসময় তিনি সিলেট ৩ আসনে অবাধ সুষ্টু নির্বাচন প্রত্যাশা করছেন এবং এ উপ-নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থীর আচরণের কারণে যেন আওয়ামীলীগ দল জাতির কাছে প্রশ্নবিত্ত হবেনা। আর আওয়ামীলীগ একটি আসন পেলে সরকার পরিবর্তন হবে না কোন প্রভাবও ফেলবেনা।যেহেতু ২০ দলীয় জোট নির্বাচনে আসেনা তার কারণ হচ্ছে অবাধ ও সুষ্টু নির্বাচন হচ্ছেনা বলে ব্লেম দিচ্ছে, এটাকে পরিষ্কার করার জন্য সরকারের স্বদিচ্ছা এবং নির্বাচন কমিশনেরই গুরু দ্বায়িত্ব একটি অবাধ নির্বাচনের উপহার দেয়া। এখন পর্যন্ত আমরা প্রতিকূলতা অবস্থা পাইনি ভবিষ্যতে কেমন অবস্থা হবে তা আমরা জানি না আল্লাহপাক জানেন কিন্ত সেই অবস্থা হলে আমি সাংবাদিকবৃন্দ আপনাদের মাধ্যমে সংবাদ সম্মেলন করে জানাবো। আশা করছি উপনির্বাচনটি অবাধ ও সুষ্টু নির্বাচনের দিকে যাবে।

তিনি আরো বলেন, এবারের নির্বাচনে জনগণের আস্থার যে একটা ব্যারোমিটার জনগণের উপরই ছেড়ে দেয়া ভাল। জনগণই দেখোক কার কতটুকু জনপ্রিয়তা আছে। আওয়ামীলীগের মত একটি বড়দল একজন প্রার্থীর জন্য দল কেন ব্লেম নিবে। এছাড়াও আওয়ামীলীগের অনেক ত্যাগী আছেন,দীর্ঘদিনের রাজনীতিবিদ আছেন তা সত্বেও এরা এসময় কিভাবে হলো হাইব্রীডভাবে একজন পেয়ে গেল তারপরও প্রতিদন্ধী হিসেবে আসছেন তাকে সম্মান জানাই।

কিন্তু আমরা চাই এমন কোন আচরণ করবে না যে মহাজোটের শরীকদলের সাথে আমাদেরকে বাধ্য করবে যে বিএনপির মত নির্বাচনে আমরা যে সরে দাড়াবো আর আমাদের নেতারা পার্লামেন্টে বক্তব্যে বলবেন আমরাও নির্বাচন করব না।এরকম পরিবেশ যেন না করে তারা। আমাদের প্রতিদন্দী প্রার্থী বলেছেন আমরা নাকি তার সাথে ষড়যন্ত্র করছি আমরা আমাদের নির্বাচনী আইনী লড়াই করেছি এখন আমরা মাঠে লড়াই করব।

তিনি আতিকুর রহমান আতিক বলেন, হাবিবুর রহমান হাবিব সাহেবকে উল্লেখ করে আমি বলছি যখন ১৯৭০সালে বঙ্গবন্ধু গলায় আমি মালা দিয়েছি তখন তার জন্ম হয়েছিল ৭২ সনে আমি যখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে এসেছি ৮৭সালে উনি তখন স্কুলে পড়েন।সে আমার ছোট ভাই আমি তাকে স্নেহ করি। আমরা একই জোটের দল আমরা বড়ভাই-ছোটভাই আমরা সুন্দর সুষ্টুভাবে নির্বাচন করি, বরং বৃহত্তর একটা গোষ্ঠি যারা নির্বাচনে যায়না ২০ দলীয়জোটসহ তাদেরকে আস্থায় আনার জন্য, তাদেরকে নির্বাচনমূখী করার জন্য এখানে সরকারের স্বদিচ্ছা এবং নির্বাচন কমিশনের বিরাট একটা ভূমিকা আছে। উপনির্বাচনে তারা প্রমান করুক সিলেট ৩ আসনে আমরা সুষ্টু নির্বাচন করতে সক্ষম হয়েছি।এখন আপনারাও আসেন নির্বাচনে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, সিলেট জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক কুনু মিয়া, কেন্দ্রীয় সদস্য মুজিবুর রহমান মুজিব, জাপা সিলেট মহানগরের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট কাজী আশরাফ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ নজরুল, জেলা জাপার যুগ্ম আহবায়ক হুমায়ুন আহমদ, জাপা নেতা আহসান হাবিব নুর, আলতাবুর রহমান আলতাব, বাশির আহমদ, দৌলা আহমদ, মরতুজা আহমদ চৌধুরী, মামুনুর রশিদ মামুন, জাহাঙ্গীর খান, আখতার হোসেন ও সাহেল রাজা চৌধুরীসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

 

0Shares