ঢাকায় এসেছে মডার্নার আরো সাড়ে ১২ লক্ষাধিক টিকা

dial dial

sylhet

প্রকাশিত: ১১:৪৬ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ৩, ২০২১

ডায়ালসিলেট ডেস্ক :: যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে পাওয়া মডার্নার তৈরি আরও সাড়ে ১২ লক্ষাধিক করোনা ভ্যাকসিন ঢাকায় পৌঁছেছে। শনিবার সকাল ৮টা ৪০ মিনিটে বিশেষ বিমানে এসব টিকা হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায়। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সূত্র জানায়, শনিবার সকালে কো-ভ্যাক্সের মর্ডানার টিকা এসেছে ১২ লাখ ৬৭ হাজার ২০০ ডোজ।

এর আগে গতকাল শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টায় যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে পাওয়া মডার্নার তৈরি ১৩ লাখ টিকা ঢাকায় এসেছে। গতকাল রাতে চীনের কাছ থেকে কেনা ১১ লাখ করোনার টিকাও ঢাকায় পৌঁছেছে।

বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়ার আট দেশের পাশাপাশি এশিয়ার ১৮টি দেশকে টিকার বৈশ্বিক উদ্যোগ কোভ্যাক্সের মাধ্যমে ১ কোটি ৬০ লাখ করোনার টিকা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। গত ২২ জুন হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে এ ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

গতকাল রাত ও আজ সকালে কোভ্যাক্সের মাধ্যমে বরাদ্দ হওয়া টিকা থেকে বাংলাদেশের জন্য দুই দফায় মডার্নার তৈরি ২৫ লাখ টিকা পাঠাল যুক্তরাষ্ট্র।

সিনোফার্মের আরও ৯ লাখ করোনার টিকা ঢাকায় এসে পৌঁছানোর কথা রয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির কাছ থেকে দেড় কোটি ডোজ করোনার টিকা কিনতে সরকার চুক্তি করেছে।

মডার্নার তৈরি টিকা ইতোমধ্যে জরুরি ব্যবহারে অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশের ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর। এ টিকা ১৮ বছর বা এর বেশি বয়সের মানুষকে দেওয়া যায়। প্রত্যেককে এই টিকা দুই ডোজ করে দিতে হয়। প্রথম ডোজ দেওয়ার চার সপ্তাহ পর দিতে হবে দ্বিতীয় ডোজ।

মডার্নার টিকা মাইনাস ১৫ থেকে মাইনাস ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে সংরক্ষণ করতে হয় যা বাংলাদেশের জন্য কঠিন। তবে ২ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় এ টিকা ৩০ দিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যায়। আর ৮ থেকে ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় এই টিকা ১২ ঘণ্টা ব্যবহারের উপযোগী থাকে। মডার্নার টিকা করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে ৯৪.১ শতাংশ পর্যন্ত কার্যকর বলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে।

বিশ্বজুড়ে টিকা সরবরাহের আন্তর্জাতিক প্ল্যাটফর্ম কোভ্যাক্স এর আগে ফাইজারের তৈরি ১ লাখ ৬২০ ডোজ করোনাভাইরাসের টিকা দিয়েছে বাংলাদেশকে, যা ৩১ মে দেশে পৌঁছায়।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিনস অ্যান্ড ইমিউনাইজেশনস বা গ্যাভি এবং কোয়ালিশন ফর এপিডেমিক প্রিপেয়ার্ডনেস ইনোভেশনসের গড়া প্ল্যাটফর্ম হলো কোভ্যাক্স, যা বিশ্বের সব মানুষের সংক্রামক রোগের প্রতিষেধক পাওয়া নিশ্চিত করতে গড়ে তোলা হয়েছে।

ডায়ালসিলেট/এম/এ/

0Shares