ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা সমর্থকদের সতর্ক করতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশের মাইকিং

dial dial

sylhet

প্রকাশিত: ৩:৩৮ অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০২১

ডায়ালসিলেট ডেস্ক:: কোপা আমেরিকার ফাইনালে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার খেলাকে কেন্দ্র করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সমর্থকদের সতর্ক করতে মাইকিং করছে পুলিশ। শনিবার সকাল থেকে শহরের বিভিন্ন স্থানে সদর মডেল থানা পুলিশের উদ্যোগে মাইকিং করা হচ্ছে। মাইকিংয়ে জরুরি ঘোষণায় বলা হচ্ছে-‘১১ই জুলাই আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের কোপা আমেরিকা ফাইনাল খেলা হতে যাচ্ছে।

উক্ত খেলাটি বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে সরাসরি সম্প্রচার করা হবে। প্রানঘাতী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কঠোর লকডাইন চলছে। এমতাবস্থায় প্রজেক্টারের মাধ্যমে বড় পর্দায় উন্মুক্তস্থানে- হাটবাজার,রাস্তার মোড়, হোটেল-রেষ্টুরেন্টে, চায়ের দোকান, পাড়ামহল্লায় ঘরবাড়িতে বন্ধুবান্ধব একত্রিত হয়ে, গনজমায়েত করে ফুটবল খেলা দেখতে পারবেন না। নিজ নিজ বাসায় বসে খেলা উপভোগ করার জন্যে সকলকে অনুরোধ করা গেল। খেলা শেষে আনন্দ মিছিল, পটকা-আতশবাজি ফুটানো সম্পূর্ন নিষেধ।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আরো সচেতন হোন,নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাসা থেকে বের হবেননা এবং অবশ্যই মাস্ক পরিধান করবেন।’

সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ এমরানুল ইসলাম জানান, সদর মডেল থানার ধামচাইল এলাকায় দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনার পর আমরা এমন পরিস্থিতি যাতে না হয় সেজন্যে ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছি। চায়ের দোকান বা উন্মুক্তস্থানে  যাতে বড় পর্দায় খেলা দেখতে না পারে সেজন্যে সতর্ক করা হচ্ছে এবং খেলার ফলাফলের পর যাতে আনন্দ-উল্লাস-মিছিল সমাবেশ করতে না পারে সে ব্যাপারে আমরা পদক্ষেপ নিয়েছি।

এদিকে, শহর এবং জেলার বিভিন্ন প্রত্যন্ত এলাকায় ফাইনালের আগমুহুর্তে সমর্থকদের মধ্যে টানটান উত্তেজনা রয়েছে। খেলা দেখার প্রস্ততি নিচ্ছে তারা। শহরের অনেকস্থানে ফাইনালের দু’প্রতিদ্বন্ধি দেশের পতাকা উড়তে দেখা গেছে। নবীনগরের রসুলপুর গ্রাম এবং জেলা শহরে দু’দলের জার্সি গায়ে সমর্থকদের ঘুরে বেড়াতে দেখা গেছে। শহরে অনেক রিকসা চালকের গায়েও রয়েছে জাসি।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোজাম্মেল হোসেন রেজা জানান, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে চলমান কঠোর লকডাউন কার্যকরে ইউনিয়ন পর্যায়ে বিট পুলিশিংয়ের টিমগুলোর পাশাপাশি পুরো জেলায় পুলিশের ২৫টিরও অধিক বিশেষ টিম কাজ করছে। কোপা আমেরিকার খেলাকে ঘিরে সমর্থকরা যেন সংঘাতে না জড়াতে পারে সেজন্য বিশেষ টিমগুলো আরও বেশি তৎপর থাকবে।

ম্যাচ খেলা শুরুর আগ থেকেই পুলিশের বিশেষ টিমগুলো বিভিন্ন পাড়া-মহাল্লায় টহল দেবে। কেউ যেন ঘর থেকে বেরিয়ে বিশৃঙ্খলা করতে না পারে, সেজন্য বিশেষ নজরদারি থাকবে। গ্রাম পর্যায়ে জনপ্রতিনিধিদেরকেও এসব বিষয়ে বলা হয়েছে। তারা পুলিশকে সহযোগীতা করবেন। খেলাকে কেন্দ্র করে কাউকেই বিশৃঙ্খলা করতে দেওয়া হবেনা।

গত ৬ জুলাই বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সাদেকপুর ইউনিয়নের দামচাইল বাজারে নোয়াব মিয়া (৬০) নামে এক ব্যক্তিকে মারধর করেন আর্জেন্টিনা সমর্থক জীবন ও তার সহযোগীরা। ওইদিন সকালে নোয়াব মিয়ার ভাতিজা ব্রাজিল সমর্থক রেজাউলের সাথে খেলা নিয়ে জীবনের বাকবিতন্ডা ও হাতাহাতি হয়। এর জেরে জীবন ও তার সহযোগীরা রেজাউলের চাচাকে একা পেয়ে মারধর করেন।

এ ঘটনার প্রতিবাদে ওইদিন রাতেই জীবনের সহযোগী তিন আর্জেন্টিনা সমর্থককে মারধর করেন ব্রাজিল সমর্থকরা।

ডায়ালসিলেটএম/৫

0Shares