স্মৃতি থেকে পরীমনি, উত্থান যেভাবে

প্রকাশিত: ৪:০৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৫, ২০২১

স্মৃতি থেকে পরীমনি, উত্থান যেভাবে

বিনোদন ডেস্ক::বনানীর বাসায় অভিযান চালিয়ে গতকাল চিত্রনায়িকা পরীমনিকে আটক করেছে র‍্যাব৷ পরীমনির বাসায় তল্লাশি চালিয়ে মাদক দ্রব্য ও মদ পাওয়া গেছে৷ এ ঘটনা এখন টক অফ দ্য কান্ট্রি। এবার জেনে নেয়া যাক, আলোচিত এই নায়িকার উত্থান হয় কীভাবে। পরীমনির আসল নাম ছিল শামসুন্নাহার স্মৃতি। এক বুক স্বপ্ন নিয়ে ২০১১ সালে রাজধানীতে আসেন সাতক্ষীরার এই তরুণী। লক্ষ্য ছিল শোবিজ জগতে কাজ করা। শুরুতে মডেলিং দিয়ে শুরু হয়েছিল তার পথচলা। এরপর আসে নামের পরিবর্তন। নাম হয় পরীমনি।এরপর বেশকিছু টিভি অনুষ্ঠান ও নাটকে কাজ করেন। তবে একের পর এক সিনেমায় যুক্ত হয়ে লাইমলাইটে আসেন। ২০১৫ সালে মুক্তি পায় পরীমনি অভিনীত প্রথম সিনেমা ‘ভালোবাসা সীমাহীন’। ওই সিনেমা মুক্তির আগেই তিনি প্রায় ২৩টি সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন! যেকোনো সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির নায়িকাদের ক্ষেত্রেই এটি বিরল। যদিও সবগুলো সিনেমা শেষ পর্যন্ত মুক্তির আলো দেখেনি। ‘ভালোবাসা সীমাহীন’ দিয়ে যাত্রা শুরু হলেও পরীমনি আলোচনায় আসেন ‘রানা প্লাজা’ সিনেমার মাধ্যমে। কেবল ২০১৫ সালেই তার এক ডজন সিনেমা মুক্তি পেয়েছিল। রাতারাতি ঢালিউডের তারকা বনে যান তিনি। সেই সঙ্গে তার হাতে আসতে থাকে নতুন নতুন সিনেমার কাজ আর কাড়ি কাড়ি অর্থ। শুরু হয় তার বিলাসবহুল জীবন। মূলত সিনেমায় পরীমনির জনপ্রিয়তা বাড়ে ২০১৬ সালে। ওই বছর মুক্তি পায় জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত সিনেমা ‘রক্ত’। সেখানে বেশ সাহসী চরিত্রে অভিনয় করে ব্যাপক আলোচিত হন তিনি। এর পরের বছর ‘অন্তর জ্বালা’ সিনেমায় কাজ করেও প্রশংসিত হয়েছিলেন এ নায়িকা। তবে পরীমনির ক্যারিয়ারে এ পর্যন্ত সবচেয়ে প্রশংসিত সিনেমা ‘স্বপ্নজাল’। যেটি নির্মাণ করেছেন ‘মনপুরা’ খ্যাত গিয়াসউদ্দিন সেলিম। এটি মুক্তি পেয়েছিল ২০১৮ সালে। এরপর তার অভিনীত কোনো সিনেমাই খুব একটা দর্শকপ্রিয়তা পায়নি।

ডায়ালসিলেট এম/

0Shares