রাজনীতি টাকা ও অস্ত্রের কাছে জিম্মি নয়: কাদের মির্জা

প্রকাশিত: ৮:৫৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১১, ২০২১

রাজনীতি টাকা ও অস্ত্রের কাছে জিম্মি নয়: কাদের মির্জা

ডায়ালসিলেট ডেস্ক::আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বলেছেন, আমি মনে করেছি অস্ত্র ও টাকার কাছে রাজনীতি জিম্মি। কিন্তু আজ এ জনসমুদ্র দেখে প্রমাণিত হয়েছে, রাজনীতি টাকা ও অস্ত্রের কাছে জিম্মি নয়। জনগণ আজ আমার প্রতি যে ভালোবাসা দেখিয়েছে, এজন্য চিরকৃতজ্ঞ থাকবো। তিনি বলেন, আমি আমেরিকায় গিয়েছিলাম স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য। আল্লাহর রহমতে আপনাদের দোয়ায় আমার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে দু’টি টিউমারে কোন জীবাণু পাওনা যায়নি। আমি এখন ভালো আছি। আমেরিকায় যাওয়ার পর সারা বাংলাদেশের মানুষ দলমত নির্বিশেষে সকলে আমার প্রতি ভালোবাসা দেখিয়েছে।

তিনি বলেন, আমি আশা করেছিলাম কোম্পানীগঞ্জে শান্তির পরিবেশ স্থাপন হবে।

আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও মহিলা আওয়ামী লীগসহ সকলকে অনুরোধ করেছি শান্তি স্থাপনের জন্য। কিন্তু আমি যাওয়ার পর কোম্পানীগঞ্জে শান্তি বিঘিœত হয়েছে। কারা এ অশান্তি সৃষ্টি করেছে আপনারা সবাই জানেন। প্রশাসনও জানে। আমার দলের সাইফুল ইসলাম কোম্পানীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তার আত্মীয়কে দেখার জন্য গেছে। কিন্তু সেখানে তাকে মেরে হাত-পা ভেঙে দিয়েছে, সে এখন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। চরফকিরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান ভুট্টো, ছাত্রলীগ নেতা আনছার উদ্দিন শাহীন, সাব্বির, ইউপি সদস্য নুরুল আফসার ভুট্টো, ইউপি সদস্য আজাদকে নির্মমভাবে পিটিয়ে আহত করেছে। অথচ পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিয়ে আমার দলের নেতা নুর হোসেন ওরুফে খান সাহেবকে গ্রেপ্তার করেছে। খান সাবেক কি কাউকে একটা চিমটি দিয়েছে, কেউ বলতে পারলে আমি হিজরত করবো। খান সাহেবের বিরুদ্ধে পুলিশ ১১টি মিথ্যা মামলা দিয়েছে।

তিনি বুধবার আমেরিকা থেকে চিকিৎসা শেষে কোম্পানীগঞ্জে ফিরলে বিকাল ৫টায় কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা, বসুরহাট পৌরসভা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন এবং সর্বস্তরের জনগণের পক্ষ থেকে বসুরহাট পৌর মিলনায়তনে দেয়া গণসংবর্ধনা সভায় এসব কথা বলেন। এ সময় কাদের মির্জার অনুসারী কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা অওয়ামী লীগের সভাপতি ইস্কান্দার হায়দার চৌধুরী বাবুলের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ইউনুছ, বসুরহাট পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি জামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আবুল খায়ের, আওয়ামী লীগ নেতা আইয়ুব আলী প্রমুখ।

তিনি ভাগিনা মাহবুব রশিদ মঞ্জুর দিকে ইঙ্গিত করে বলেন, পুলিশি পাহারায় তার বাসায় আমাদের দলের নেতাদের বিরুদ্ধে সেতুমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ফেসবুক লাইভে এসে মিথ্যাচার করেছে, অথচ পুলিশ তাকে কিছুই করেনি। পুলিশের উপস্থিতিতে কিভাবে মন্ত্রীর বিরুদ্ধে কথা বলে? তিনি বলেন, আমি আমেরিকায় গিয়ে দলমত নির্বিশেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের প্রশংসা শুনে অভিভূত হয়েছি। শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে আজ যে পর্যায়ে নিয়ে গেছে অতীতে কেউ নিতে পারে নাই, ভবিষ্যতেও নিতে পারবে না।

ডায়ালসিলেট এম/

0Shares