আফগানিস্তানে ক্ষমতায় আবারও তালেবানরা

প্রকাশিত: ৯:৫৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৫, ২০২১

আফগানিস্তানে ক্ষমতায় আবারও তালেবানরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::ক্ষমতা বদল হল আফগানিস্তানে। প্রায় দু’দশক পর আফগানিস্তানে আবার শুরু হল তালেবান শাসন। কাবুলের ক্ষমতা দখল করার পরেই সেখানকার প্রধান জেলখানার দরজা খুলে দিয়েছে তালিবান। খবর আল জাজিরা ও আনন্দবাজারের সেখানে বন্দি তালিবান যোদ্ধাদের মুক্তি দেওয়া হয়েছে। কাবুলের প্রায় সব সরকারি ভবনে উড়ছে তালিবানের পতাকা। গোটা শহর জুড়ে ক্ষমতা বদলের ছবি স্পষ্ট। রাজপথের দখল নিয়েছে তালিবান। চলছে উল্লাস। জনপথে গাড়ির ভিড়ে যানজট তৈরি হয়েছে। সবাই নিজেদের বাড়ি ফেরার চেষ্টা করছেন। প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানির পদত্যাগের পর আফগানিস্তানের বর্তমান সরকার অন্তর্বতীকালীন সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তরের প্রক্রিয়া শুরু করেছে। আফগান গণমাধ্যমে খবর এসেছে, এই অন্তর্বর্তীকালীন সরকারে প্রধান হিসেবে দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন দেশটির সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও কূটনীতিক আলী আহমাদ জালালি। আফগানিস্তানের সংবাদ সংস্থা খামা প্রেসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রোববার বিকেলে তালেবান প্রধান মোল্লা আবদুল গনি বরাদর কাতার – আমেরিকার কূটনীতিবিদদের নিয়ে আশরাফ ঘানির সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন। এ বৈঠকের পরই সিদ্ধান্ত আসতে পারে। তালেবানের সহ প্রতিষ্ঠাতা মোল্লা আব্দুল ঘানি বারাদার আফগানিস্তানের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হতে যাচ্ছেন বলে খবর এসেছে আরব গণমাধ্যমগুলোতে। রবিবার বিকেল ৪টার দিকে আফগানিস্তানের গণমাধ্যমগুলো জানায়, আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন আশরাফ ঘানি। সরকারের একজন মন্ত্রী গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, কাবুলে হামলা হবে না, এই শর্তে তালেবানের সঙ্গে সমঝোতা হয়েছে। এ দিন বিকেলে তালেবান প্রধান মোল্লা আবদুল গনি বরাদর এবং কাতার – আমেরিকার কূটনীতিবিদদের সঙ্গে বৈঠকের একপর্যায়ে ঘানির পদত্যাগের ঘোষণা আসে।

ডায়ালসিলেট এম/

0Shares