বিশ্বনাথে কলেজছাত্রীর ‘আত্মহত্যা’

প্রকাশিত: ৮:২৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৯, ২০২১

বিশ্বনাথে কলেজছাত্রীর ‘আত্মহত্যা’

ডায়ালসিলেট ডেস্ক;:সিলেটের বিশ্বনাথে প্রিয়াংকা রানী নাথ ওরফে সঙ্গী (২২) নামের এক কলেজছাত্রী গলায় ওড়না ও দরজার পর্দা পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। তিনি উপজেলার অলংকারী ইউনিয়নের রামাইচক রহিমপুর গ্রামের নরউত্তম দেবনাথের মেয়ে ও সিলেটের মদন মোহন কলেজের অনার্স চতুর্থ বর্ষের ছাত্রী।

বুধবার (১৮ আগস্ট) রাতে নিজ কক্ষের ছাদে ব্যবহৃত বাঁশের সঙ্গে ওড়না ও দরজার পর্দা পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। একপর্যায়ে তার পরিবারের সদস্যরা বিষয়টি টের পেয়ে তাকে উদ্ধার করেন। ততক্ষণে নিষ্প্রাণ হয়ে যায় প্রিয়াংকার দেহ।

খবর পেয়ে বিশ্বনাথ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে লাশ ময়নাতদন্তের জন্যে ওই রাতেই সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

তবে কেন, কী কারণে আত্মহত্যার পথ বেছে নিলেন প্রিয়াংকা- এ ব্যাপারে কিছু জানাতে পারেননি তার পরিবারের কেউ। এ ঘটনায় কলেজছাত্রীর ভাই সুজন দেবনাথ বুধবার রাতে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করেছেন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, পড়ালেখার পাশাপাশি চাকরির মাধ্যমে সংসার পরিচালনা করতেন প্রিয়াংকা। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি অবিবাহিত।

আত্মহত্যার বিষয়ে জানতে প্রিয়াংকার ভাই সুজন দেবনাথের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ বিষয়ে কোনো কথা বলতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

এ ব্যাপারে বিশ্বনাথ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গাজী আতাউর রহমান বলেন, বিষয়টি গুরুত্বসহকারে দেখা হচ্ছে। লাশ উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন ও আমাদের নিজস্ব তদন্তের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ডায়ালসিলেট এম/

0Shares

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ