বছরের শেষ নাগাদ আফগানিস্তান ছাড়তে পারেন ৫ লাখ নাগরিক

প্রকাশিত: ১১:৫০ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৮, ২০২১

বছরের শেষ নাগাদ আফগানিস্তান ছাড়তে পারেন ৫ লাখ নাগরিক

ডায়ালসিলেট ডেস্ক::জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক এজেন্সি ইউএনএইচসিআর বলেছে, বছরের শেষ নাগাদ পাঁচ লাখ আফগান তাদের মাতৃভূমি ছাড়তে পারেন। এসব মানুষের নিরাপত্তার জন্য প্রতিবেশী দেশগুলোর সবাইকে সীমান্ত উন্মুক্ত রাখার আহ্বান জানিয়েছে এই এজেন্সি। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। শুক্রবার ইউএনএইচসিআরের ডেপুটি কমিশনার কেলি ক্লেমেন্টস বলেছেন, আফগানিস্তান সঙ্কটের প্রেক্ষিতে কয়েক হাজার আফগান প্রতিদিন ইরানে প্রবেশ করছেন। অন্যদিকে আফগানিস্তান থেকে পাকিস্তানে আসা-যাওয়া করছেন অনেকে। সব মিলে এ বছরের শেষ নাগাদ এ অঞ্চলে নতুন প্রায় ৫ লাখ শরণার্থীর জন্য আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি। এটা হবে এক ভয়াবহ পরিস্থিতি। বর্তমান প্রেক্ষাপটে আমরা বিপুল পরিমাণ আফগানকে দেশ ছাড়তে দেখিনি। আফগানিস্তানের ভিতরকার পরিস্থিতি খুব দ্রুত পরিবর্তন হচ্ছে, যা কেউ প্রত্যাশা করতে পারেননি। সম্প্রতি পাকিস্তানের দিকে অল্প সংখ্যক মানুষের প্রবাহ দেখা গেছে। কেলি ক্লেমেন্টস বলেন, ইউএনএইচসিআরের পরিকল্পনায় দেখা যাচ্ছে আগামী চার মাসের মধ্যে ইরান, পাকিস্তান এবং মধ্য এশিয়ার দেশগুলোতে ৫ লাখ আফগান শরণার্থী ছড়িয়ে পড়বেন। কিন্তু কেন এত শরণার্থীর ঢল নামবে, সে বিষয়ে তিনি বিস্তারিত কিছু বলেননি। তবে এখানে উল্লেখ করা যায় যে, বৃহস্পতিবার কাবুল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আত্মঘাতী হামলা চালিয়েছে আইএস-কে। এতে সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত কমপক্ষে ১৭০ জন নিহত হয়েছেন। এতে আফগানদের মধ্যে আতঙ্ক আরো বেড়ে যাবে। আইএস-কে’র এই হামলার নিন্দা জানিয়েছে তালেবানরা। তারা এর তদন্ত করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।
এরই মধ্যে নতুন শরণার্থীদের আশ্রয় ও দেখাশোনার জন্য ইউএনএইচসিআরের আর্থিক প্রচেষ্টা নিয়ে ইউরোপিয়ান কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লিয়েন ও অন্য দাতাদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন এই ইউএনএইচসিআরের কমিশনার ফিলিপ্পো গ্রান্ডি। এতে তিনি আর্থিক সহায়তা দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

ডায়ালসিলেট এম/

0Shares