করোনায় হঠাৎ পুরুষের চেয়ে নারীর মৃত্যু দ্বিগুণ

প্রকাশিত: ৪:৫০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৮, ২০২১

করোনায় হঠাৎ পুরুষের চেয়ে নারীর মৃত্যু দ্বিগুণ

ডায়ালসিলেট ডেস্ক্::দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে নারীদের মৃত্যু বাড়ছে। মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) সারা দেশে করোনায় ৫৬ জনের মৃত্যুর তথ্য দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এর মধ্যে ৩৭ জনই নারী। অর্থাৎ করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় পুরুষের চেয়ে দ্বিগুণ সংখ্যক নারীর মৃত্যু হয়েছে। গত বছরের মার্চে দেশে করোনার সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকে কখনো এমন চিত্র দেখা যায়নি।

সংক্রমণের শুরু থেকে দেশে করোনায় পুরুষের চেয়ে নারীদের মৃত্যু কম ছিল। গত জুন থেকে নারীদের মৃত্যু বাড়ছে। গত মাসে বেশ কিছু দিন দৈনিক মৃত্যুর প্রায় অর্ধেক ছিল নারী।

সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় হঠাৎ নারীদের মৃত্যু বেড়ে গেল কেন সে বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো কারণ বলতে পারছেন না জনস্বাস্থ্যবিদেরা।

এ বিষয়ে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) উপদেষ্টা মুশতাক হোসেন বলেন, নারীর মৃত্যু বেড়ে যাওয়ার একটি কারণ হতে পারে ডেলটা ভেরিয়েন্ট। ডেলটা ভেরিয়েন্টের সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর দেখা গেছে বেশির ভাগ ক্ষেত্রে একজন আক্রান্ত হলে পরিবারের প্রায় সবাই আক্রান্ত হয়েছেন। একই সময়ে আগের তুলনায় নারীরা বেশি সংখ্যায় আক্রান্ত হয়েছেন। যে কারণে নারী মৃত্যুও বেড়েছে। কিন্তু সংক্রমণ কমে যাওয়ার পর আরও বেশ কিছুদিন যদি এই ধারা অব্যাহত থাকে, তাহলে বিষয়টি গবেষণা করতে হবে। দেখতে হবে এর সঙ্গে অন্য কোনো বিষয় আছে কি না।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, গত ১ মার্চ পর্যন্ত দেশে করোনায় মোট মৃত্যুর ২৪ দশমিক ৩৯ শতাংশ ছিলেন নারী। আর গতকালের হিসাবে দেখা যাচ্ছে, মোট মৃত্যুর ৩৫ দশমিক ৪০ শতাংশ নারী।

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনার সংক্রমণ শনাক্তের খবর জানানো হয়। চলতি বছরের মার্চে এসে সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ দেখা দেয়। আর গত জুন থেকে করোনার ডেলটা ধরন (ভারতে উৎপত্তি) ছড়িয়ে পড়লে সংক্রমণ ও মৃত্যু ভয়াবহ আকার ধারণ করে। একই সঙ্গে মৃত্যুর ক্ষেত্রে কিছু বৈশিষ্ট্যগত পরিবর্তন দেখা যায়। শুরু থেকে ষাটোর্ধ্ব মানুষের মৃত্যু বেশি ছিল। এখনো বেশি মৃত্যু হচ্ছে ষাটোর্ধ্বদের। তবে জুন মাস থেকে অপেক্ষাকৃত কম বয়সীদের মৃত্যু বাড়তে দেখা যাচ্ছে। একইভাবে নারীর মৃত্যুও এ সময়ে এসে আগের চেয়ে অনেক বেড়ে যায়।

ডায়ালসিলেট এম/

0Shares