৯/১১ হামলায় সহায়তা করেছিল সৌদি আরব?

প্রকাশিত: ৪:২৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১২, ২০২১

৯/১১ হামলায় সহায়তা করেছিল সৌদি আরব?

ডায়ালসিলেট ডেস্ক::যুক্তরাষ্ট্রে ৯/১১ সন্ত্রাসী হামলার তদন্ত এবং ওই হামলায় ব্যবহৃত বিমান ছিনতাইয়ে সৌদি আরব সরকারের সমর্থনের বিষয় নিয়ে বেশ কিছু ডকুমেন্ট প্রকাশ করেছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের নির্বাহী আদেশের ফলে এসব ডকুমেন্ট শনিবার ৯/১১ হামলার ২০তম বার্ষিকীতে প্রথম প্রকাশ করা হলো। ২০১৬ সালের এসব ডকুমেন্টে হামলার বিষয়ে এফবিআইয়ের তদন্তের বিস্তারিত বর্ণনা রয়েছে। এতে তদন্ত করা হয়েছে সৌদি আরবের কনসুলার এক কর্মকর্তার লজিস্টিক সমর্থন এবং সৌদি আরবের গোয়েন্দা সংস্থার একজন এজেন্টের বিষয়ে। ওই এজেন্ট তখন অবস্থান করছিলেন লস অ্যানজেলেসে। ধারণা করা হয়, ওই এজেন্ট কমপক্ষে দু’জন ব্যক্তিকে পাঠিয়ে বিমান ছিনতাইয়ে সহায়তা করেছেন। তাদের সহায়তায় ২০০১ সালের ১১ই সেপ্টেম্বর বিমান ছিনতাই করে নিউ ইয়র্কে বিশ্ব বাণিজ্য কেন্দ্রে ভয়াবহ হামলা চালানো হয়। এসব ডকুমেন্ট প্রকাশ হলেও এখনও অনেক বিষয় রয়ে গেছে অজানা।এই ডকুমেন্টে বিপুল পরিমাণ সাক্ষীর সাক্ষ্য রয়েছে এবং বহুবিধ সম্পর্কের বিষয় দেখা যায়, যার ফলে এফবিআই সন্দেহ করে ওমর আল বায়ুমিকে। তিনি লস অ্যানজেলেসে সৌদি আরবের একজন শিক্ষার্থী ছিলেন। তবে এফবিআই সন্দেহ করে এই ব্যক্তি সৌদি আরবের একজন গোয়েন্দা এজেন্ট। এফবিআইয়ের ডকুমেন্টে দু’জন বিমান ছিনতাইকারীকে ভ্রমণ সহায়তা, বাসস্থান এবং আর্থিক সহায়তা দেয়ার জন্য গভীরভাবে যুক্ত বলে তাকে চিহ্নিত করা হয়েছে। এর আগে বুধবার ওয়াশিংটন ডিসিতে সৌদি আরবের দূতাবাস বলেছিল, তারা এফবিআইয়ের ডকুমেন্ট প্রকাশকে স্বাগত জানায়। ৯/১১ এর সন্ত্রাসী হামলায় সৌদি আরব যুক্ত বলে যে অভিযোগ, তা সর্বোতভাবে মিথ্যা বলে দাবি করেন তিনি।
৯/১১ হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত কমপক্ষে ১৬০০ মানুষ প্রেসিডেন্ট বাইডেনের কাছে একটি চিঠি লিখেছিলেন। তাতে বলা হয়েছিল, ওই হামলা নিয়ে গোয়েন্দা ডকুমেন্ট প্রকাশ না করলে তিনি যেন নিউ ইয়র্ক সিটির গ্রাউন্ড জিরো’তে ওই হামলায় নিহতদের স্মরণ করতে যাওয়া থেকে বিরত থাকেন। এ ঘটনার পরই বাইডেন ওই ডকুমেন্ট প্রকাশে নির্বাহী আদেশ জারি করেন। চিঠিতে সৌদি আরবের ভূমিকা সম্পর্কে প্রশ্ন তোলা হয়েছে। অভিযোগ করা হয়েছে, ওই হামলাকারীদের সমর্থন দেয়ার জন্য সৌদি আরব সরকারের সদস্যরা জড়িত। চিঠি দেয়ার অল্প পরেই আইন মন্ত্রণালয় ঘোষণা দেয় যে, এর আগে ৯/১১ হামলা নিয়ে যে গোয়েন্দা রিপোর্ট আছে তা গোপন রাখা হয়েছিল। কিন্তু তা জনগণের সামনে প্রকাশ করে দেয়া হতে পারে।
আইন মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র আগস্টে বলেন যে, ৯/১১ বিমান ছিনতাই সংক্রান্ত একটি তদন্ত শেষ করে আনার পরামর্শ দেন ম্যানহ্যাটান ফেডারেল কোর্টকে। এফবিআই এ ধরণের তথ্য যত দ্রুত সম্ভব ধারাবাহিকভাবে প্রকাশ করবে। তখন আইন মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছিলেন জো বাইডেন।

ডায়ালসিলেট এম/

0Shares