সিলেটে ৮ ভূয়া সাংবাদিক ও কথিত অনলাইন পত্রিকার বিরুদ্ধে আইসিটি মামলার অভিযোগ

প্রকাশিত: ১১:৩৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২১

সিলেটে ৮ ভূয়া সাংবাদিক ও কথিত অনলাইন পত্রিকার বিরুদ্ধে আইসিটি মামলার অভিযোগ

 

ডায়ালসিলেট ডেস্ক :: সিলেটে ৮ ভূয়া সাংবাদিক ও কথিত অনলাইন পত্রিকার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার অভিযোগ উঠেছে। এশিয়ান টিভি সিলেট অফিসের ভিডিও জার্নালিষ্ট বদরুর রহমান বাবর বাদী হয়ে বুধবার দুপুরে সিলেটের সাইবার টাইব্যুনালে এ মামলা করেন। মামলায় অননুমোদিত বেশ কয়েকটি অনলাইন পোর্টালের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে তদন্তের জন্য সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের শাহপরান থানার অফিসার ইনচার্জকে নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলার অভিযুক্ত আসামীরা হলেন, সিলেট নগরীর উত্তর বালুচর আল ইসলাহ ১১০ নম্বর বাসার আওলাদ আলীর ছেলে মোহন আহমদ, খরাদিপাড়া আনন্দ ৮/এ বাসার রফিকুল ইসলাম বাচ্চুর স্ত্রী সৈয়দা কবিরুন নেছা, শাহপরান মোকামেরগুলের শফিক মিয়ার ছেলে রাজন আহমদ আরিয়ান, সিলেটের সমাচার ডটকম এর প্রতিবেদক তুহিনুর রহমান শাহ্জাহান, দৈনিক বিজয়ের বাণী ডটকম এর প্রতিবেদক এএইস রণি, দৈনিক ভাটি বাংলা ডটকমের সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি তোফায়েল আহমদ চৌধুরী, দৈনিক ভাটি বাংলা ডটকমের চেয়ারম্যান এনামুল হক (এনাম), ও দৈনিক ভাটি বাংলা ডটকমের সম্পাদক ও প্রকাশক এস এম ওয়াহিদুল ইসলাম।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, ১নং আসামী মোহন আহমদ একজন ভুঁইফোড় সাংবাদিক। তার অপরাপর সহযোগীদের অনিবন্ধীত ও অননুমোদিত কথিত অনলাইন পত্রিকার সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে সিলেটে অপসাংবাদিকতা করে আসছে। এর ধারাবাহিকতায় মোহনসহ তার সহযোগীরা সাংবাদিক বদরুর রহমান বাবরের বিরুদ্ধে মিথ্যা ভিত্তিকর ও মানহানিকর তথ্য প্রকাশ করে ফেইসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়। যাতে সংক্ষুব্ধ হন সিলেট প্রেসক্লাবের সিনিয়র সদস্য বদরুর রহমান বাবর।

মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মুহম্মদ তাজউদ্দিন বলেন, আসামীরা পরসপর যোগসাজসে মিথ্যা ভিত্তিহীন মানহানিকর স্ট্যাটাস দিয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর সংশ্লিষ্ট ধারায় অপরাধ করেছে।  বুধবার দুপুরে সিলেটের সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আবুল কাশেম-এর আদালতে আমরা মামলা ফাইল করি। আদালত মামলার শুনানী শেষে তদন্তের জন্য শাহপরান থানাকে নির্দেশ দিয়েছেন।

0Shares