আলেমদের অন্যায়ভাবে গ্রেপ্তার না করার আহ্বান হেফাজত আমীরের

প্রকাশিত: ১১:৪৫ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২১

আলেমদের অন্যায়ভাবে গ্রেপ্তার না করার আহ্বান হেফাজত আমীরের

ডায়ালসিলেট ডেস্ক;:দেশের সম্মানিত আলেম-ওলামা ও দ্বীনের দাঈদেরকে অন্যায়ভাবে গ্রেপ্তার ও হয়রানি বন্ধ করতে সরকারের প্রতি আহবান জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা মহিবুল্লাহ বাবুনগরী।
আজ সকালে হেফাজত আমীরের প্রেস সচিব মাওলানা হারুন আজিজী নদভী স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানান তিনি।
বিবৃতিতে হেফাজত আমীর বলেন, সম্প্রতি কিছু আলেমকে বিভিন্নভাবে গভীর রাতে তাদের নিজ বাড়ি থেকে বা অন্য কোন স্থান থেকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। একটি স্বাধীন গণতান্ত্রিক দেশে এরূপ ঘটনা অনুচিত বলে আমরা মনে করি। কারণ দেশে রয়েছে প্রশাসন, আদালত, কোর্টকাচারী ও বিচার বিভাগ। কারো বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ থাকলে তা যাচাই বাছাই এবং সুষ্ঠু তদন্ত করে তার যথাযোগ্য বিচার করার সুযোগ রয়েছে। তাহলে এভাবে ভিন্ন কায়দায় জনগণের মনে হতাশা ও আতঙ্ক সৃষ্টিকারী পদ্ধতির দিকে যেতে হবে কেন।
আল্লামা মহিবুল্লাহ বাবুনগরী বলেন, একটি স্বাধীন গণতান্ত্রিক দেশে এসকল অগণতান্ত্রিক নিয়মকে শক্ত হাতে দমন করা না গেলে দেশের মধ্যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হতে পারে। জনমনে ক্ষোভ ও হতাশা সৃষ্টি হতে পারে।

দেশের সম্মানিত আলেম-ওলামা ও দ্বীনের দাঈদেরকে অন্যায়ভাবে গ্রেপ্তার ও হয়রানি বন্ধ করতে সরকারের প্রতি আহবান জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা মহিবুল্লাহ বাবুনগরী।
আজ সকালে হেফাজত আমীরের প্রেস সচিব মাওলানা হারুন আজিজী নদভী স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানান তিনি।
বিবৃতিতে হেফাজত আমীর বলেন, সম্প্রতি কিছু আলেমকে বিভিন্নভাবে গভীর রাতে তাদের নিজ বাড়ি থেকে বা অন্য কোন স্থান থেকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। একটি স্বাধীন গণতান্ত্রিক দেশে এরূপ ঘটনা অনুচিত বলে আমরা মনে করি। কারণ দেশে রয়েছে প্রশাসন, আদালত, কোর্টকাচারী ও বিচার বিভাগ। কারো বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ থাকলে তা যাচাই বাছাই এবং সুষ্ঠু তদন্ত করে তার যথাযোগ্য বিচার করার সুযোগ রয়েছে। তাহলে এভাবে ভিন্ন কায়দায় জনগণের মনে হতাশা ও আতঙ্ক সৃষ্টিকারী পদ্ধতির দিকে যেতে হবে কেন।
আল্লামা মহিবুল্লাহ বাবুনগরী বলেন, একটি স্বাধীন গণতান্ত্রিক দেশে এসকল অগণতান্ত্রিক নিয়মকে শক্ত হাতে দমন করা না গেলে দেশের মধ্যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হতে পারে। জনমনে ক্ষোভ ও হতাশা সৃষ্টি হতে পারে

কোন আত্মগোপনকারী শত্রুগোষ্ঠী ইসলাম ও দেশের বিরুদ্ধে সুযোগ নিতে পারে। তাই আমরা সরকারের কাছে অনুরোধ রাখছি, যেন জনমনে ভয়-ভীতি ও আতঙ্ক সৃষ্টিকারী কায়দায় কোন আলেম বা সুনাগরিককে ধর পাকড় করা না হয়। অভিযুক্ত ব্যক্তিকে, সে যেই হোক না কেন, আইন অনুযায়ী পুলিশ হেফাজতে নিয়ে বিচারাধীন করা হোক।
আল্লামা বাবুনগরী বলেন, আমরা বলছি না যে, আলেম ওলামারা সবাই নিষ্পাপ ও অভিযোগ মুক্ত। হতে পারে তাদের মধ্যেও কেউ অপরাধী কিংবা দোষী থাকবেন। কিন্তু আমাদের দাবি হলো, অভিযুক্তদেরকে দেশের সাধারণ নিয়মে বিচারের আওতায় আনলে জনগণ স্বস্তি পাবেন।
তিনি বলেন, আমরা এর সাথে বলতে চাই, গ্রেপ্তারকৃত আলেম ওলামাদের সুষ্ঠু তদন্ত করে তাদের মুক্তির ব্যবস্থা করা হোক। আমরা সরকারকে স্পষ্ট ভাষায় বলতে চাই, আলেম-ওলামারা এদেশের বা সরকারের শত্রু নন। বরং তারা দেশ ও দশের কল্যাণে সর্বদা এগিয়ে থাকেন।
হেফাজত আমীর বলেন, মনে রাখতে হবে, শেষ বিচারের দিন আমাদের সবাইকে আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের সামনে দাঁড়াতে হবে। তখন বান্দাদের এক একটি বিষয়ের হিসাব নেওয়া হবে। তখন সবার সব কিছু আল্লাহর সামনে প্রকাশ পাবে। অনেকে সেদিন আল্লাহর সামনে খুব বেশি লজ্জিত হবেন। সুতরাং আমরা যেন এরূপ কোন কাজ না করি যাতে আল্লাহর সামনে লজ্জিত হতে হয়।

দেশ ও জাতির জন্য দোয়া করে আল্লামা মহিবুল্লাহ বাবুনগরী বলেন, আল্লাহ তাআলা যেন আমাদের দেশ ও সমাজকে সব ধরনের বিপদাপদ, ষড়যন্ত্র ও সংকট থেকে রক্ষা করেন। আর আলেম ওলামাসহ সর্বস্তরের জনগণকে শান্তিপূর্ণ ভাবে জীবন যাপন করার তৌফিক দেন।

ডায়ালসিলেট এম/

0Shares