শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে অবরোধ তুলে নিলো রবি’র শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত: ৩:৩২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২, ২০২১

শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে অবরোধ তুলে নিলো রবি’র শিক্ষার্থীরা

ডায়ালসিলেট ডেস্ক::অবশেষে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নমনীয়তা এবং শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে অবরোধ তুলে নিল রবি’র আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। টানা পাঁচ দিন অবস্থান ধর্মঘট এবং দুইদিন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে দায়িত্বপ্রাপ্ত ভিসিসহ শিক্ষক, কর্মকর্তাদের অবরুদ্ধ করে রাখার পর শনিবার দুপুর ১২টার দিকে ভবনের তালা খুলে দিয়ে অবরোধ কর্মসূচি তুলে নেয়া হয়। সেইসাথে অবস্থান কর্মসূচির কিছুটা শিথিল করা হয়েছে। শনিবার সাড়ে এগারোটার দিকে প্রেস ব্রিফিং করে এ ঘোষণা দেন রবি’র আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মুখপাত্র একেএম নাজমুল হোসাইন। এদিকে অবরোধ তুলে নিলেও দুদিন (৪৮ ঘন্টা) অর্থাৎ সোমবার পর্যন্ত আল্টিমেটাম দিয়েছে শিক্ষার্থীরা। এই আটচল্লিশ ঘন্টার মধ্যে তাদের একমাত্র দাবি বাস্তবায়ন না হলে পুনরায় কঠোর আন্দোলনে যাবার হুঁশিয়ারি দিয়েছে তারা। সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৪ ছাত্রের মাথার চুল কেটে দেয়ার ঘটনায় সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনকে ইতোমধ্যেই সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। প্রেস ব্রিফিং-এ একেএম নাজমুল হোসাইন জানান, বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টায় অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৬তম সিন্ডিকেট সভায় অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সেই সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল কার্যক্রম অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়। পরবর্তীতে ছাত্রদের আন্দোলনের মুখে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল কার্যক্রম চালু রেখে শুধু পরীক্ষা স্থগিত ঘোষণা করেন কর্তৃপক্ষ। সেইসাথে তদন্ত প্রতিবেদন সোমবারের মধ্যে দেওয়ার কথা বলেছেন। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পরেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিবেন বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। এরপরেই মূলত অবরোধ কর্মসূচি তুলে নিয়ে অন্যান্য কর্মসূচিতে শিথিলতা আনা হয়েছে। উল্লেখ্য, গত ২৬শে সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস সংস্কৃতি ও বাংলাদেশ স্টাডিজ বিভাগের ১৪ জন শিক্ষার্থীর মাথার চুল কেটে দেয়ার ঘটনায় রাতে বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র নাজমুল হোসেন তুহিন (২৫) ঘুমের ওষুধ সেবন করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাতে অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন বাতেন দায়িত্বে থাকা ৩টি পদ থেকে পদত্যাগ করেন।

ডায়ালসিলেট এম/

0Shares