সামান্থার সিদ্ধান্ত

প্রকাশিত: ১১:৩৯ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ৬, ২০২১

সামান্থার সিদ্ধান্ত

বিনোদন ডেস্ক::তার ব্যক্তিগত জীবন টালমাটাল। ক’ দিন আগেই ভেঙে গিয়েছে চার বছরের দাম্পত্য জীবন। সেকথা প্রকাশ্যে আসতেই উড়ে এসেছে নানা ধরনের কটাক্ষ। চলেছে আলোচনা-সমালোচনা। এমনকি বাদ যায়নি মিথ্যা অপবাদও। সব বিতর্ক থেকে নিজেকে দূরে রাখতে তাই দিন কয়েক টুইটার থেকেই বিরতি নেবেন ভারতের চলতি সময়ের আলোচিত অভিনেত্রী সামান্থা। নাগা চৈতন্যের সঙ্গে বিচ্ছেদ ঘোষণার পর থেকে টুইটারে সেভাবে সক্রিয় ছিলেন না সামান্থা। সাম্প্রতিক-কালে মাত্র দু’টি পোস্ট করেছেন তিনি। তার মধ্যে একটি বিতর্ক নিয়ে সামান্থার জারি করা বিবৃতি, অন্যটি বিজ্ঞাপন। গুঞ্জন বলছে, টুইটারে তাকে নিয়ে নানা ধরনের নেতিবাচক মন্তব্য মেনে নিতে পারছেন না সামান্থা। তাই নিজেকে ঠিক রাখতেই এই পদক্ষেপ। দিন কয়েক আগে একাধিক ইউটিউব চ্যানেলের বিরুদ্ধেও মানহানির মামলা দায়ের করেছিলেন সামান্থা। তার পক্ষ থেকে জানানো হয়, ইউটিউব চ্যানেলগুলো অভিনেত্রীর নামে ভুয়া খবর রটাচ্ছিল। জনপ্রিয়তা পাওয়ার লোভে ভুল তথ্য দিয়ে বেশকিছু ভিডিও তৈরি করা হয়েছিল বলে অভিযোগ। সেগুলিতে বলা হয়েছিল, সামান্থার বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক এবং গর্ভপাত করার সিদ্ধান্তই তার এবং নাগা চৈতন্যের বিচ্ছেদের কারণ। এর পরেই সেই ইউটিউব চ্যানেলগুলির কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেন সামান্থা। এদিকে, এ অভিনেত্রীর টুইটার ছাড়ার সিদ্ধান্তের বিষয়টি নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন নেটিজেনরা। অনেকেই বলছেন, অভিনেত্রী হলে সমালোচনা নেয়ার মানসিকতা থাকা উচিত। টুইটার ছাড়া সমাধান নয়। আবার অনেকে বলছেন, সঠিক সিদ্ধান্ত। সামান্থার এখন কেবল কাজেই মনোযোগ দেয়া উচিত। এদিকে, সামান্থা এখন বলিউড ছবিতেও কাজ করার কথা জানিয়েছেন। এরইমধ্যে একটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধও হয়েছেন তিনি। এখন থেকে তিনি বলিউডে নিয়মিত হওয়ার কথাও ঘনিষ্ঠজনদের জানিয়েছেন।

ডায়ালসিলেট এম/

0Shares