আদালতে মামলা থাকা সত্ত্বেও জোর পূর্বক ভূসম্পত্তিতে বাড়ি নির্মাণ, পুলিশ কমিশনার বরাবর অভিযোগ

প্রকাশিত: ১০:১৭ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১৭, ২০২১

আদালতে মামলা থাকা সত্ত্বেও জোর পূর্বক ভূসম্পত্তিতে  বাড়ি নির্মাণ, পুলিশ কমিশনার বরাবর অভিযোগ

ডায়ালসিলেট ডেস্ক;;সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ১০নং ওয়ার্ডের ঘাসিটুলা কলাপাড়া এলাকায় জোরপূর্বক জায়গায় দখল করে বাড়ি নির্মাণে অভিযোগ উঠেছে। এব্যাপারে গত ১৫ নভেম্বর ঘাসিটুলা লামাপাড়ার বাসিন্দা নছর মিয়া পুলিশ কমিশনার বরাবরে একই এলাকার মৃত আখলু মিয়ার ছেলে ফিরোজ মিয়া, ফিরোজ মিয়ার ছেলে নজির মিয়া, নাছির মিয়া, জনি মিয়া, মৃত আব্দুল হান্নানের ছেলে দিলেক মিয়া ও মোজাম্মেল মিয়ার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করেন দায়ের করেন। অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, ঘাসিটুলা কলাপাড়ায় অভিযুক্ত ব্যক্তিদের সাথে নছর মিয়ার যৌথ সম্পত্তি রয়েছে। এ সম্পত্তি ভাগ-ভাটোয়ারা নিয়ে আদালতে মামলা এখনও চলমান। আদালতের মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া সত্ত্বেও জোরপূর্বকভাবে অভিযুক্তকারীরা উক্ত স্থানে বাড়ি নির্মাণে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। ২০১২ সালে সম্পত্তি ভাটোয়ারার জন্য বিজ্ঞ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন নছর মিয়া। যার নং ১৩৩/২০১২। বিজ্ঞ আদালত মামলার প্রেক্ষিতে ২০২০ সালের ৩০ নভেম্বর নছর মিয়ার পক্ষে রায় প্রদান করেন। পরবর্তীতে ফিরোজ মিয়া জেলা জজ আদালতে রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন। যার আপিল নং ৬২/২০২১ইং। বর্তমানে এ আপিল এখনও বিচারাধীন। বিচারাধীন থাকা সত্ত্বেও চলতি বছরের ১৯ অক্টোবর সকাল ১০টায় উক্ত ভূমিতে অভিযুক্তরা গৃহ নির্মাণ তৈরির কাজ শুরু করে। এসময় নছর মিয়া মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত কাজ বন্ধ রাখার আহ্বান জানান। কাজ বন্ধ না রাখায় গত ২ নভেম্বর তিনি মাননীয় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত সিলেটে ফৌজদারি কার্যবিধি ১৪৫ ধারার বিধানমতে দরখাস্ত করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে অভিযুক্তরা গালিগালাজ সহ প্রাণ নাশের হুমকি দেন নছর মিয়াকে। বর্তমানে নছর মিয়া তাদের হুমকিতে পরিবার পরিজন নিয়ে আতঙ্কের মধ্যে দিন যাপন করছেন। সুষ্ঠু সমাধানের তিনি প্রশাসনের উর্ধ্বতন মহলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

ডায়ালসিলেট এম/

0Shares

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ