আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার হওয়া জাহাঙ্গীর : সব ষড়যন্ত্র হয়েছে

প্রকাশিত: ১:০৫ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২০, ২০২১

আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার হওয়া জাহাঙ্গীর : সব ষড়যন্ত্র হয়েছে

 

ডায়ালসিলেট ডেস্ক :: বঙ্গবন্ধু ও মহান মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে বিতর্কিত বক্তব্য করায় গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের (গাসিক) মেয়র ও গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং আওয়ামী লীগের সদস্যপদ থাকা জাহাঙ্গীর আলমকে। পরে তাকে  স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।

 

শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়৷ সভার একটি সূত্র থেকে বিষয়টি জানা গেছে ৷ সভায় জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জাহাঙ্গীর আলমের ধারণ করা একটি অডিও সম্প্রতি ভাইরাল হয়। এতে তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং মহান মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে কটাক্ষ ও বিতর্কিত বক্তব্য দিয়েছেন বলে অভিযোগ ওঠে। তার বক্তব্য ভাইরাল হওয়া পর গাজীপুরের স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভের সঞ্চার হয়। তারা জাহাঙ্গীর আলমকে দল থেকে বহিষ্কারের দাবি তোলেন নেতাকর্মীরা।

 

ওই ঘটনার পর গত ৩ অক্টোবর আওয়ামী লীগের কেন্দ্র থেকে তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয় ৷ এরপর কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় তাকে বহিষ্কার করা হলো ৷  শুক্রবার বিকেল চারটায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে শুরু হওয়া বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

 

এদিকে আজীবন বহিষ্কারের পর ‘ষড়যন্ত্র’ বলে প্রতিক্রিয়া জানালেন মেয়র ও গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং আওয়ামী লীগের সদস্যপদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার হওয়া জাহাঙ্গীর আলম। একই সঙ্গে দলের পক্ষ থেকে এখনো তাকে কিছুই জানানো হয়নি বলে দাবি করেছেন তিনি।

 

দলীয় সিদ্ধান্তের বিষয়ে মেয়র জাহাঙ্গীর আলম গণমাধ্যমকে বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে ছোটবেলা থেকেই ভালবাসি, শ্রদ্ধা করি। তাকে বা মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে কোনো কুটূক্তি করিনি। সব ষড়যন্ত্র হয়েছে। আগেও বলেছি নেত্রীর আমার অভিভাবক। তিনি ও দল যে সিদ্ধান্ত নেয়, মেনে নিবো। তবে দল থেকে আমাকে সিদ্ধান্তের ব্যাপারে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত কিছু জানানো হয়নি।’

 

0Shares