ডারবানে প্রথম দিনে এগিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা

প্রকাশিত: ১:০৮ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১, ২০২২

ডারবানে প্রথম দিনে এগিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা

ডায়াল সিলেট ডেস্ক :: প্রথম সেশনে কোনো সফলতা নেই। দ্বিতীয় সেশনে ৩ উইকেট তুলে দিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দেয় বাংলাদেশ। তবে তৃতীয় সেশন গেছে প্রোটিয়াদের পক্ষেই, পড়েছে মাত্র এক উইকেট। প্রথম দিনের খেলা শেষে ডারবান টেস্টে ৪ উইকেট হারিয়ে প্রোটিয়াদের সংগ্রহ ২৩৩ রান। আলোক স্বল্পতায় নির্ধারিত সময়ের বেশ আগে শেষ হয় প্রথম দিনের খেলা।
দক্ষিণ আফ্রিকার জার্সিতে নিজের পঞ্চাশতম টেস্ট খেলতে নামা অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান টেম্বা বাভুমা ৫৩ এবং ডানহাতি কাইল ভেরেইনা ২৭ রানে অপরাজিত থেকে আগামীকাল দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করবেন। বাংলাদেশের পক্ষে এবাদত হোসেন, খালেদ আহমেদ এবং মেহেদী হাসান মিরাজ ১টি করে উইকেট নেন।
দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে টস জিতে অধিনায়ক মুমিনুল হক আগে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন। কারণ হিসেবে জানান, শুরুতে উইকেটে থাকা হালকা ঘাস আর আর্দ্রতার ফায়দা তুলতে চান বোলারদের দিয়ে। লাভ হলো না তাতে। ফায়দা তুলতে পারেননি বাংলাদেশি পেসাররা। এতে কোনো উইকেট না হারিয়ে প্রথম সেশনে ৯৫ রান তুলে ফেলে দক্ষিণ আফ্রিকা।
দ্বিতীয় সেশনটা বাংলাদেশের। ওপেনিংয়ে নেমে অর্ধশতক করা অধিনায়ক ডিন এলগারের সঙ্গে ফেরেন আরেক ওপেনার সারেল আরভিয়া। ৪১ রান করে সাজঘরের পথ ধরেন তিনি। ওই সেশনেই কিগান পিটারসেনকে দুর্দান্ত এক থ্রোতে রান আউট করেন মিরাজ। পরে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৬৫ রান দিয়ে চা বিরতিতে যায় স্বাগতিকরা।
দিনের তৃতীয় ও শেষ সেশনে আবার দাপট দেখান দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটসম্যানরা। বাভুমা ২২ আর রায়ান রিকলটন ১১ রানে অপরাজিত থেকে এই সেশনের খেলা শুরু করেন। চা বিরতির পর প্রথম ওভারেই রিকলটনকে ফেরানোর আবেদন করেন এবাদত। বল লাগে প্যাডে। তবে বাংলাদেশের আবেদনে সাড়া দেননি আম্পায়ার। রিভিউ নেয় সফরকারীরা। পরে দেখা যায়, বল পিচ করছিল লেগ স্টাম্পের বাইরে। এর আগেও একটি রিভিউ নষ্ট হয় এবাদতের বলে।
সেই এবাদতের হাত ধরেই অবশ্য এই সেশনের একমাত্র সাফল্য পায় লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। নিজের অভিষেক ইনিংসে দারুণ শুরু করেছিলেন রিকলটন। এবাদতের বলটি খুব বিপজ্জনক কিছু ছিল না। অফ স্টাম্পের বাইরে লেংথ বল। সেটিই পুল করার চেষ্টা করেন রিকলটন। একটু বাড়তি লাফানো বল, টাইমিং হয়নি ঠিকঠাক। মিড অনে সহজ ক্যাচ নেন মুমিনল হক।
এরপর দলকে টেনে তোলেন বাভুমা, সঙ্গী হিসেবে পান ভেরেইনাকে। দুই জনের পার্টনারশিপের এক ফাঁকে ব্যক্তিগত ফিফটি তুলে নেন বাভুমা। নিজের ১৮তম টেস্ট ফিফটর স্বাদ পান ১০৩ বলে। এরপর ইনিংসের ৭৭তম ওভারে আলোক স্বল্পতার কারণে প্রথম দিনের খেলা বন্ধ ঘোষণা করেন ফিল্ড আম্পায়াররা। এতে দুজনের অবিচ্ছেদ্য ৫৩ রানের পার্টনারশিপে ৪ উইকেটে ২৩৩ রানে দিন শেষ করে দক্ষিণ আফ্রিকা।

0Shares