জুড়ীতে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে চাঁদা দাবি ও হামলা ভাঙচুরের অভিযোগ

প্রকাশিত: ৭:৫৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৩০, ২০২৩

জুড়ীতে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে চাঁদা দাবি ও হামলা ভাঙচুরের অভিযোগ

ডায়াল সিলেট ডেস্ক    জুড়ীতে এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবি, না দেওয়ার জমি দখলের চেষ্টা হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে।
ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার ২৯ জানুয়াারি দুপুর ১২ টায় উপজেলার ৫নং জায়ফরনগর ইউনিয়নের চাটেরা গ্রামে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী মৃত হারিছ আলীর পুত্র আব্দুল মান্নান বাদী হয়ে ওই ইউপি সদস্যকে প্রধান আসামি করে দুইজনের বিরুদ্ধে জুড়ী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।
জানা যায় জায়ফরনগর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডে বর্তমান ইউপি সদস্য জাকির হোসেন মনির দীর্ঘদিন থেকে তার প্রতিবেশী আব্দুল মান্নানের নিকট ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছিল। চাঁদা না দিলে জমি দখল করে নেয়ার সহ আব্দুল মান্নানকে প্রাণনাশের হুমকি দিতে থাকে।
ঘটনার দিন ইউপি সদস্য জাকির হোসেন মনির (৩৬) একই গ্রামের মৃত মনাফ মিয়ার পুত্র দুদুল (২৫) সহ কয়েকজন মিলে আব্দুল মান্নানের বাড়িতে উপস্থিত হয়ে বাড়ির পাশের জমি দখলের চেষ্টা করে ।
এ সময় আব্দুল মান্নানের পরিবারের পক্ষ থেকে বাধা প্রদান করলে আব্দুল মান্নান ও তার স্ত্রীকে মারধর করা হয়। আব্দুল মান্নান অভিযোগ করে বলেন, থানায় লিখিত অভিযোগ করলে আরো ক্ষিপ্ত হযে ওঠেন ইউপি সদস্য জাকির হোসেন মনির ।
থানা থেকে বাড়ি ফেরার পর আরো একবার হামলার স্বীকার হন আব্দুল মন্নান (৪৫) তার স্ত্রী ছইফা বেগম (৩৭)। আব্দুল মান্নান জানান গত ইউপি নির্বাচনে ভোট না দেয়ার জের ধরে ইউপি সদস্য জাকির হোসেন মনির একের পর এক হয়রানি করে আসছেন। তার ভয়ে তারা ঘর থেকে বের হতে পারছেন না।
এ বিযয়ে ইউপি সদস্য জাকির মনির বলেন,আমি ঘটনার সাথে জড়িত না। আব্দুল মান্নান একজন খারাপ প্রকৃতির লোক। সে অন্য একজনের কাছে জমি বিক্রি করে দখল দিচ্ছে না। আমি বিচার বৈঠক করে মীমাংসা করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু আব্দুল মান্নান বিচারে না বসে আমার মান-সম্মান নষ্ট করার জন্য উল্টো আমার বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছে। জুড়ী থানার এসআই খসরুল আলম বাদল বলেন, অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থল তদন্ত করেছি।

0Shares

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ