বাড়ি ফেরার পথে অজ্ঞাত গাড়ির চাপায় রিপন মিয়া (৩৫) নামে এক যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যু 

প্রকাশিত: ৫:২০ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩, ২০২৩

বাড়ি ফেরার পথে অজ্ঞাত গাড়ির চাপায় রিপন মিয়া (৩৫) নামে এক যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যু 
ডায়াল সিলেট ডেস্ক: মৌলভীবাজার সদর উপজেলার কুলাউড়া সড়কের ইসলামপুর বড়বাড়ী মসজিদের সামনে এ ঘটনা ঘটে। নিহত রিপন মিয়া সদর উপজেলার গিয়াসনগর ইউনিয়নের কালিয়ারগাঁও গ্রামের শামছু মিয়ার বড় ছেলে।
নিহতের ছোট ভাই মিন্টু মিয়া জানান, বুধবার সিংকাপন গ্রামের মখলিছ মিয়ার বাড়িতে কাজের মজুরির টাকা আনতে যান রিপন মিয়া। সন্ধ্যায় খবর পান তার ভাই-কে অজ্ঞাত গাড়ি চাপা দিয়ে ফেলে যায়। সেখান থেকে তাঁকে উদ্ধার করে স্থানীয় দুই ব্যক্তি মৌলভীবাজার সদর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে আসলে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষনা করেন। ৪ ভাই আর এক বোনের মধ্যে রিপন পরিবারে সবার বড়। দিনমজুরের কাজ করেই চলতো তাদের পরিবার।
বুধবার রাতে হাসপাতালে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায় সেখানকার ইমারজেন্সি বিভাগের সামনের ফ্লোরে নিহত দিনমজুর রিপনের মরদেহ রাখা। মৃতদেহের মাথায় মারাত্মক আঘাত প্রাপ্ত হওয়ায় কান দিয়ে অনবরত রক্ত বের হয়ে পড়ছিলো। এমন দৃশ্য দেখে হাসপাতালেই নিহত রিপনের বাবা সমছু মিয়া ও ভাই মিন্টু মিয়াসহ পরিবার ও স্বজনদের গগনবিদারী কান্নায় সেখানকার পরিবেশ ভারি হয়ে উঠে। এমন ভয়ানক মৃত্যুর বিষয়টি মানতে পারছেন না পরিবারের সদস্যরা। এলাকায়ও অত্যান্ত সাদাসিধে সহজ-সরল মানুষ হিসেবে পরিচিত রিপন।
এদিকে রিপনের মৃত্যুর খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে যান ১২ নং গিয়াসনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গোলাম মোশাররফ টিটু ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সমাজসেবক জিলা মিয়াসহ এলাকার লোকজন।
অপরদিকে রাত সাড়ে ১১টার দিকে হাসপাতালের বিভিন্ন আনুষ্ঠানিকতা শেষে এম্বুল্যান্সে করে যখন রিপনের মরদেহ তাঁর গ্রামের বাড়িতে পৌঁছে, তখন সেখানে পরিবার-প্রতিবেশীর মাঝে এক হৃদয় বিদারক দৃশ্য’র অবতারণা তৈরি হয়। লাশ দেখে নিহত রিপনের মা-বাবা আর তাঁর দুই অবুঝ শিশুও হাউমাউ করে বারবার কান্নায় ভেঙে পড়তে দেখা যায়।
পরিবার সূত্রে জানা যায়, নিহত রিপনের স্ত্রীসহ ৩ বছর বয়সী ছেলে শিশু ও ৮ বছর বয়সী এক কন্যা শিশু রয়েছে। ৪ ভাই আর এক বোনের মধ্যে রিপন পরিবারে সবার বড়। দিনমজুরের কাজ করেই চলতো তাদের পরিবার। আয়-রোজগারের একমাত্র ভরসা রিপনের মৃত্যুতে পরিবার জুড়ে দেখা দিয়েছে এক অজানা অনিশ্চয়তা।
এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে জানাযা শেষে নিহত রিপনের লাশ পারিবারিক কবরস্থানে দাফনের কথা রয়েছে।
মৌলভীবাজার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুনুর রশিদ চৌধুরী জানান, বুধবার সন্ধ্যায় অজ্ঞাত গাড়ি চাপায় মৃত্যু হয়েছে রিপন নামের এক যুবকের। রাতেই আইনগত প্রক্রিয়া শেষে পরিবারের সদস্যরা মরদেহ নিয়ে যায়।
0Shares

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ