বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ পাচ্ছেন শাবির ৭৭ শিক্ষার্থী

প্রকাশিত: ৩:০০ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১২, ২০২৩

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ পাচ্ছেন শাবির ৭৭ শিক্ষার্থী

শাবি প্রতিনিধি :: অর্থ মন্ত্রণালয়ের গবেষণা প্রকল্পের আওতায় ২০২৩-২৪ অর্থবছরে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি (এনএসটি) ফেলোশিপ পাচ্ছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্বদ্যিালয়ের ৭৭ শিক্ষার্থী। সোমবার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের উপসচিব রতন কুমার মন্ডলের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়।

 

এরমধ্যে ভৌত বিজ্ঞান গ্রুপে এমএস,এমফিল, পিএইচডি ক্যাটাগরিতে ১ হাজার ২১৪ জনের মধ্যে শাবিপ্রবি থেকে ৩২ জন, জীব ও চিকিৎসা বিজ্ঞান ক্যাটাগরিতে ৯২৫ জনের মধ্যে ২৪ জন, খাদ্য ও কৃষি বিজ্ঞান ক্যাটাগরিতে ১ হাজার ৭০৬ জনের মধ্যে ২১ জন ফেলোশিপের জন্য মনোনীত হয়েছেন।

 

এতে ভৌত বিজ্ঞান ক্যাটাগরিতে ফেলোশিপ প্রাপ্ত হয়েছেন ৩২ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে সর্বোচ্চ রাসয়ন ও পরিসংখ্যান বিভাগ থেকে ১০ জন করে, জিওগ্রাফি এন্ড এনভারনমেন্ট বিভাগ থেকে ৬ জন এবং গণিত ও সমুদ্রবিজ্ঞান বিভাগ থেকে ৩ জন করে করে ফেলোশিপপ্রাপ্ত হয়েছেন।

জীববিজ্ঞান ও চিকিৎসা বিজ্ঞান ক্যাটাগরিতে ফেলোশিপপ্রাপ্ত ২৪ জন। এর মধ্যে বায়োকেমিস্ট্রি এন্ড মলিকিউলার বায়োলজি বিভাগ থেকে ১২ জন, জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ার এন্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগ থেকে ১২ জন শিক্ষার্থী ফেলোশিপপ্রাপ্ত হয়েছেন।

খাদ্য ও কৃষি বিজ্ঞান ক্যাটাগরিতে ২১ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স বিভাগ থেকে ১৪ জন, ফুড ইঞ্জিনিয়ার এন্ড টি টেকনোলজি বিভাগ থেকে ৫ জন ও বায়োকেমিস্ট্রি এন্ড মলিকিউলার বায়োলজি বিভাগ থেকে ২ জন ফেলোপ্রাপ্ত হয়েছেন।

ফেলোশিপের জন্য মনোনীত এমএস ক্যাটাগরিতে প্রত্যেককে ৫৪ হাজার টাকা, এমফিল (১ম বর্ষ) ক্যাটাগরিতে ৬৮ হাজার ৪০০ ও এমফিল (২য় বর্ষ) ক্যাটাগরিতে ৯৯ হাজার টাকা এবং পিএইচডি ক্যাটাগরিতে ৩ লাখ টাকা করে পাবে ফেলোশিপ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা।

 

উল্লেখ্য, ১৯৭৭-৭৮ অর্থবছর থেকে গবেষণা কার্যক্রমকে আরও এগিয়ে নিতে ক্যাটাগরি-১ (ভৌত বিজ্ঞান), ক্যাটাগরি-২ (জীব ও চিকিৎসাবিজ্ঞান), ক্যাটাগরি-৩ তে (খাদ্য ও কৃষি বজ্ঞান) এই ফেলোশিপ প্রদান করা হয়। তিন ক্যাটাগরির নির্ধারিত কমিটি বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়, গবেষণা প্রতিষ্ঠানে অধ্যায়নরত ও গবেষণারত এমএস, এমফিল, পিএইচডি, পোস্ট-ডক্টোরাল শিক্ষার্থী ও গবেষকদের আবেদন গ্রহণ, যাচাই-বাছাই ও সাক্ষাতকার গ্রহণের মাধ্যমে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় এই ফেলোশিপ প্রদান করে থাকে।

 

0Shares

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ