গ্রীন ডিজএ্যাবল্ড ফাউন্ডেশনের ২৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

প্রকাশিত: ২:৪৯ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ৩০, ২০২৪

গ্রীন ডিজএ্যাবল্ড ফাউন্ডেশনের ২৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

ডায়াল সিলেট ডেস্ক :: সিলেটের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) জসিম উদ্দিন বলেছেন, সরকার প্রতিবন্ধী মানুষের জীবন মান উন্নয়ন ও তাদেরকে স্বাবলম্বি করতে বিভিন্ন সুযোগ-সুবিদা প্রদান করেছে। সেই সব সুযোগ-সুবিদা গ্রহণ করে প্রতিবন্ধী মানুষকে সহযোগিতার মাধ্যমে এগিয়ে নিতে হবে। প্রতিবন্ধীরা অক্ষম নয়, বিভিন্ন বিষয়ে তারাও সক্ষম। সুস্থ সবল মানুষের মত শিক্ষা, সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা সহ অনেক ক্ষেত্রেই তারা দক্ষতার স্বাক্ষর রাখছেন।

 

তাদেরকে প্রতিষ্ঠিত করতে সরকারের পাশাপাশি সবাইকে কাজ করার আহবান জানান।

 

অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার সোমবার বিকালে নগরীর দক্ষিণ সুরমার আলমপুরস্থ জননেত্রী শেখ হাসিনা পার্কে গ্রীন ডিজএ্যাবল্ড ফাউন্ডেশন (জিডিএফ)’র ২৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন উপলক্ষে আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের মিলন মেলায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

 

জিডিএফ’র নির্বাহী সদস্য দেওয়ান ছালামত রাজা চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সদস্য নারী উদ্যোক্তা সাবিলা কান্তা’র পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- সিলেট জেলা সমাজ সেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক আব্দুর রফিক, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার গীতা রাণী শর্মা, বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী হিমাংশু বিশ্বাস, ফুলকলির মহাব্যবস্থাপক খন্দকার জসিম উদ্দিন, সিলেট উইমেন্স চেম্বার অব কমার্স ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি স্বর্ণলতা রায়।

 

স্বাগত বক্তব্য রাখেন- গ্রীন ডিজএ্যাবল্ড ফাউন্ডেশন (জিডিএফ)’র মহাসচিব ও নির্বাহী পরিচালক বায়জিদ খান।

 

সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- দক্ষিণ সুরমা মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী হালিমা বেগম, রোটারিয়ান মাছুম জামান, নৃত্য শিল্পী অনিতা সিনহা, বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী অটিস্টিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুরাইয়া নাসরিন।

 

উপস্থিত ছিলেন জিডিএফ’র কোষাধ্যক্ষ মাছুম আহমদ চৌধুরী, ব্যাবস্থাপক স্বপন মাহমুদ, সদস্য ফাতেমা বেগম, জেসমিন আক্তার, শারমিন আক্তার রেবা, সুপার ভাইজার রায়হান খান, শিক্ষক বায়জিদ শিপন, জয়দ্বীপ কর প্রমুখ।

 

বক্তারা বলেন, জিডিএফ’র প্রতিষ্ঠতা, সর্বজন পরিচিত ব্যক্তি মরহুম রজব আলী খান নজিবের হাতে গড়া মানব সেবামূলক সংগঠন গ্রীন ডিজএ্যাবল্ড ফাউন্ডেশন প্রতিবন্ধীদের কল্যাণে যে ভাবে কাজ করে যাচ্ছে যা প্রশংসনীয়। বক্তারা এ ধারা অব্যাহত রাখার আহবান জানান।

 

0Shares