সরকারের অপশাসনে সকল জাতীয় প্রতিষ্ঠান ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে: খন্দকার মুক্তাদির

dial dial

sylhet

প্রকাশিত: ৯:৫২ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৯

ডায়ালসিলেট ডেস্ক:সুশৃংখল আন্দোলনের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির। তিনি বলেন, দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সন তারেক রহমানের নেতৃত্বে দেশের সকলক্ষেত্রে কাঙ্খিত পরিবর্তনও আসবে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রথম বর্ষপূর্তিতে মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) বিকালে সিলেটে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট-১ আসনে বিএনপি সমর্থিত ও ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘বর্তমান সরকারের কর্মকান্ডে কোন স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নেই। সরকারের অপশাসনে দেশের সকল জাতীয় প্রতিষ্ঠান এখন ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। অবিলম্বে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করেন।’

এক প্রশ্নের জবাবে স্বজনদের বরাত দিয়ে খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির বলেন, ‘অসুস্থ খালেদা জিয়া স্বাস্থ্যঝুঁকিতে রয়েছেন। অস্বাস্থ্যকর স্যাঁতস্যাঁতে পরিবেশের মধ্যে তাকে দিনযাপন করতে হচ্ছে। তার আর্থ্রাইটিসের ব্যথা, ফ্রোজেন শোল্ডার, হাত নড়াচড়া করতে পারেন না। রিস্ট জয়েন্ট ফুলে গেছে, সার্ভাইক্যাল স্পনডাইলোসিসের জন্য কাঁধে প্রচন্ড ব্যথা, এই ব্যথা হাত পর্যন্ত রেডিয়েট করে। হিপ জয়েন্টেও ব্যথার মাত্রা প্রচন্ড। ফলে শরীর অনেক অসুস্থ। তিনি পা তুলে ঠিক মতো হাঁটতেও পারেন না। চোখের অবস্থাও ভালো না।’

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে আইনি লড়াইয়ে মুক্ত করা যাবে না। কারণ তাকে বন্দি করা হয়েছে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে। সরকার আইনি প্রক্রিয়ায় খালেদা জিয়াকে মুক্ত হতে দেবে না।

খালেদা জিয়ার মুক্তি নিয়ে বিএনপির নতুন পদক্ষেপ সম্পর্কে জানতে চাইলে খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে জাতীয়তাবাদী শক্তিকে ধ্বংস করার পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে সাজানো মামলায় খালেদা জিয়াকে সাজা দেওয়া হয়েছে এবং তার প্রাপ্য অধিকার জামিন থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে।

বিএনপিসহ দেশের অধিকাংশ মানুষ খালেদা জিয়ার মুক্তি চায়। বর্তমান পরিস্থিতিতে বিএনপি মনে করে, যেহেতু রাজনৈতিক কারণে ম্যাডামকে বন্দি করে রাখা হয়েছে, রাজনৈতিকভাবেই তাকে মুক্ত করতে হবে। এ ক্ষেত্রে আন্দোলনের কোনো বিকল্প নেই।
আন্দোলনের কথা বললেও বাস্তবে বিএনপির কোনো প্রস্তুতি আছে কি না-এমন প্রশ্নের জবাবে খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির বলেন, আন্দোলনের প্রস্তুতির অংশ হিসেবেই আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নেতৃত্বে বিএনপি এবং অঙ্গ সংগঠনগুলোর পুনর্গঠন কাজ চলছে। খালেদার মুক্তিসহ সরকারবিরোধী সব ইস্যু নিয়েই মাঠে নামবে বিএনপি। এ ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় কৌশল অবলম্বন করা হবে।

নগরীর জিন্দাবাজারস্থ একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে দলের উপদেষ্টা ড. ইনামুল হক চৌধুরী, দলের কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক দিলদার হোসেন ও কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন, জেলা বিএনপির আহবায়ক কামরুল হুদা জায়গীরদার, মহানগর সভাপতি নাসিম হোসেইন, বিএনপি নেতা ফয়সল আহমদ চৌধুরী ও আলী আহমদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

0Shares