লতিফ সিদ্দিকীর দুর্নীতি মামলার স্থগিতাদেশ বহাল।

প্রকাশিত: ১:৫০ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৬, ২০২০

ডায়ালসিলেট ডেস্ক::   সাবেক মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলায় হাইকোর্টের দেয়া স্থগিতাদেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ। তবে মামলা বাতিল সংক্রান্ত হাইকোর্টের জারি করা রুল ছয় মাসের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে বলেছে সর্বোচ্চ আদালত।

আজ (বৃহস্পতিবার) হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদকের) আবেদনের শুনানি করে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন ছয় বিচারপতির ভার্চুয়াল আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

দুদকের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। লতিফ সিদ্দিকীর পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী শহিদুল ইসলাম।

দুদকের পক্ষে আইনজীবী খুরশীদ আলম খান বলেন, হাইকোর্টের স্থগিতাদেশটিই আপিল বিভাগ বহাল রেখেছেন। তবে আপিল বিভাগের আদেশ পাওয়ার ৬ মাসের মধ্যে মামলা বাতিল সংক্রান্ত রুল নিষ্পত্তি করতে বলা হয়েছে। বগুড়ার জজ আদালতে বর্তমানে দুর্নীতি মামলাটি সাক্ষ্যগ্রহণ পর্যায়ে রয়েছে বলে জানান তিনি।

মামলার অভিযোগ গঠনের আদেশ চ্যালেঞ্জ করে আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী আবেদন করলে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্ট এ মামলার কার্যক্রম ৬ মাসের জন্য স্থগিত করেন।

ওই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করে দুদক। সে আবেদনের শুনানি করে আপিল বিভাগ হাইকোর্টের দেয়া স্থাগিতাদেশ বহাল রেখে রুল নিষ্পত্তির আদেশ দিলেন।

লতিফ সিদ্দিকী আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ছিলেন। হজ ও ইসলাম ধর্ম নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করায় তাকে দল থেকে বাদ দেয়া হয়। তিনি টাঙ্গাইল-৪ আসনের সাবেক সংসদ এবং ২০০৯ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত সরকারের পাট ও বস্ত্র মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ছিলেন।

ওই সময় তিনি দুর্নীতি করেছেন অভিযোগ করে ২০১৭ সালের ১৭ অক্টোবর বগুড়ার আদমদীঘি থানায় এই মামলা করেন দুদকের সহকারী পরিচালক মো. আমিনুল ইসলাম।

0Shares