সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিও ভাইরাল

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন করেছে একদল দূবৃত্তরা

প্রকাশিত: ১২:১৭ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৫, ২০২০

ডায়ালসিলেট ডেস্ক :: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক গৃহবধূর ঘরে ঢুকে বিবস্ত্র করে পাশবিক নির্যাতন করেছে একদল দূবৃত্তরা। মোবাইল ফোনে সেই নির্যাতনের ভিডিওটি ধারণ করে ফেইসবুক লাইভ দেয় তারা। গত ২রা সেপ্টেম্বর রাতে ওইবিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। নির্যাতনের পর গৃহবধূ ও তার পরিবার এলাকা ছেড়ে অন্যত্র চলে যায়। এ ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ঘটনার এক মাস পর রোববার দুপুরে নির্যাতনের ওই ভিডিও কেউ একজন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেন। মুহূর্তের মধ্যে তা ছড়িয়ে (ভাইরাল) পড়ে। সঙ্গে সঙ্গে পুলিশও তৎপর হয়ে ওঠে।

জানা যায়, স্থানীয় দেলোয়ার বাহিনীর প্রধান দেলোয়ার ও সহযোগি বাদল এবং কর্মী রহিম, সুমনসহ পাঁচ-ছয়জন গৃহবধূর সঙ্গে ঘরে ঢুকে বিবস্ত্র করে পাশবিক নির্যাতন করে। পরে অভিযান চালিয়ে সন্ধ্যায় আবদুর রহিম নামের একজনকে আটক করে পুলিশ একটি সূত্রে জানা যায়।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ওই গৃহবধূর বিয়ে হয় বছর তিনেক আগে। স্বামী তাকে রেখে দ্বিতীয় বিয়ে করে অন্যত্র বসবাস করতে থাকে। দীর্ঘদিন স্বামীর কোনো যোগাযোগ ছিল না। গত ২ সেপ্টেম্বর রাতে স্বামী তার সঙ্গে দেখা করতে আসে। মাদক ব্যবসায়ী দেলোয়ার বিষয়টি জানতে পেরে তার লোকজন নিয়ে রাত ১০টার দিকে গৃহবধূর ঘরে প্রবেশ করে ‘অনৈতিক’ কাজের অভিযোগ এনে তাকে মারধর শুরু করে। একপর্যায়ে ওই নারীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণ করে তারা।এক মিনিট ২৩ সেকেন্ডের ওই ভিডিও ফুটেজ দেখে অনেকেই অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

এধরনের ন্যক্কারজনক এই ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় না আনলে ভবিষ্যতে আরো খারাপ পরিস্থিতি সম্মুখীন হতে হবে সমাজে।
উল্লেখ্য, গত ২০দিন ধরে সিলেটসহ বিভিন্নস্থানে শিশু এবং নারীরা ধর্ষণ ও পাশবিক নির্যাতনের শিকার হচ্ছে।

0Shares