ঈদে তারকাবহুল নাটক ‘কাঁটা হেরি ক্ষান্ত কেন’

প্রকাশিত: ১:২২ অপরাহ্ণ, মে ৯, ২০২১

বিনোদন  ডেস্ক:

হাস্যরসের আড়ালে পারিবারিক ও সামাজিক মূল্যবোধের গল্পে নাটক নির্মাণ করেন দীপু হাজরা৷ তার নাটকগুলোতে নিয়মিত দেখা যায় চঞ্চল চৌধুরী, আ খ ম হাসান, শাহনাজ খুশি, বৃন্দাবন দাসকে। আসছে৷ রোজা ঈদেও এই তারকাদের নিয়ে নাটক বানিয়েছেন তিনি।

নাম ‘কাঁটা হেরি ক্ষান্ত কেন’। বৃন্দাবন দাসের রচনায় এ নাটকের শুটিং শেষ হয়েছে সম্প্রতি। এখানে চঞ্চল চৌধুরী, শাহনাজ খুশি, বৃন্দাবন দাস, আ খ ম হাসানের পাশাপাশি আরও দেখা যাবে নাদিয়া আহমেদ, নাদিয়া মিম, প্রাণ রায়, শিরিন আলম, মাসুদ রানা মিঠু, সোহানা শারমিন, আশরাফ রবি ও আরো অনেকে।

সাত পর্বের ধারাবাহিকটি ঈদের সাতদিন প্রচার হবে রাত ৯টায়, এনটিভিতে।

এর গল্পে দেখা যাবে জন্মসূত্রে নাম ছিলো আলতাফ হোসেন। দাদী আদর করে ডাকতো আলতু বলে। শৈশবে সেই নামেই পরিচিত হয় আলতাফ। বয়স বাড়ার সাথে সাথে তার ব্যক্তিত্ব এবং আচরণের কারণে প্রথমে কে আলতুকে ‘ফালতু’ বলে সম্বোধন করেছিলো সে ইতিহাস জানা না গেলেও বর্তমানে ঐ ফালতু নামের নিচেই চাপা পরে গেছে আলতাফের আসল নামটি।

শুরু থেকেই নামের এমন বিকৃতির প্রতিবাদ করে আসছে আলতু। সে তার নামের আদ্যাক্ষর ‘আ’ কে সামনে এনে বোঝানোর চেষ্টা করে আ তে আলতু হয় ফালতু নহে। তবুও তার পরিত্রাণ নেই। সচেতনভাবেই মানুষ তাকে ফালতু বলে ডেকে আনন্দ পায়-মাঝে মধ্যে এ নিয়ে আলতুর সাথে অপ্রতিকর ঘটনাও ঘটে যায়-সবাই এটাকে স্বাভাবিক ভাবেই মেনে নিয়েছে। আলতুকে ফালতু বলে ডাকা রীতিমত একটা বিনোদনের বিষয়ে পরিণত হয়ে গেছে।

আলতাফের বৈশিষ্টই হচ্ছে গ্রামের যে কোনো ঘটনায় সে সবার আগে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হবে এবং নিজ দায়িত্বে কেউ প্রত্যাশা করুক না করুক সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেবেই। সেটা হোক পারিবারিক কলহ, দাম্পত্য কলহ, দুর্ঘটনা, সাপে কাটা, কুকুরে কামড়-মেডিকেল অথবা আইনী সর্ব প্রকার সাহায্য প্রদান করতে সদা প্রস্তুত আলতু। বলা চলে এটাই এখন তার পেশা।

নানা রকম কর্মকান্ডের মধ্যে নিজের কিছু আয় হয়ে থাকে। বেশীর ভাগ ক্ষেত্রেই মানুষ তাকে তাচ্ছিল্য করে ফালতু বলে হেলা করলেও তাকে এড়াতে পারে না। এক ধরনের অদ্ভুত সম্বোহনী শক্তি দিয়ে পরিস্থিতি নিজের অনুকুলে আনার গুণ রয়েছে তার মধ্যে। যদিও প্রায়শঃই শেষ রক্ষা হয় না।

লেখাপড়ার দৌড় তেমন নেই আলতাফের। তবে সবসময় তার কাছে একটা ইংরেজি পত্রিকা থাকে। সেটি খুলে নিয়ে বসে থাকে-মনযোগ দিয়ে পড়ার ভান করে। এ নিয়ে স্ত্রীর সাথে তার প্রতিদিন ঝামেলা হয়-তবে গায়ে মাখে না। নিজেকে সে একজন পরামর্শক দাবী করে। সে কারণে প্রয়োজন না থাকলেও উপযাচক হয়ে যে কোন বিষয়ে পরামর্শ দিতে ঝাঁপিয়ে পরে-কাজটি করতে গিয়ে বেশীর ভাগ ক্ষেত্রের তাচ্ছিল্য এবং অপমানিত হয়-তবে গায়ে মাখে না। প্রচার করে তার নীতি হচ্ছে ‘কাঁটা হেরি ক্ষান্ত কেন কমল তুলিতে…..’

এলাকায় ফালতু নামে পরিচিত আলতাফ হোসেন হঠাৎ একদিন একটা বড় ফালতু ঘটনা ঘটিয়ে ফেলে। সেটাই দেখার অপেক্ষা করতে হবে।

 

0Shares