৪৮ এসপির পদায়ন নিয়ে বিপাকে র‌্যাব

dial dial

sylhet

প্রকাশিত: ৮:২৮ পূর্বাহ্ণ, মে ১৯, ২০২১

ডায়ালসিলেট ডেস্ক::

অর্গানোগ্রাম অনুযায়ী পুলিশ বাহিনী থেকে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নে (র‌্যাব) কর্মরত থাকতে পারবেন নয়জন এসপি।

যাদের পদবি হবে উপপরিচালক। বছরের পর বছর এ নয়টি পদ ফাঁকা ছিল। কিন্তু হঠাৎ সেখানে গত রোববার ৪৮ এসপিকে পদায়নের প্রজ্ঞাপন জারি করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

এসব এসপির পদায়ন নিয়ে বিপাকে পড়েছে র‌্যাব। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, নতুন যেসব এসপিকে পদায়নের জন্য প্রজ্ঞাপন জারি হয়েছে তাদের মধ্য থেকে নয়জনকে পদায়ন করা সম্ভব হবে।

সাংগঠনিক কাঠামো অনুযায়ী অন্যদের পদায়নের সুযোগ নেই। প্রথা ভেঙে তাদের পদায়ন করা হলেও নানা সমস্যায় পড়ছে বিশেষায়িত এ ফোর্স।

বিষয়টি নিয়ে মঙ্গলবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে বৈঠক হয়। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সভাপতিত্বে বৈঠকে পুলিশের আইজি ড. বেনজীর আহমেদ ও র‌্যাব মহাপরিচালক চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুনসহ পদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক সূত্র যুগান্তরকে জানায়, কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই এ বৈঠক শেষ হয়েছে। বিষয়টির সমাধান করতে অন্যান্য বাহিনীর প্রধানদের নিয়ে বৈঠক করা হবে।

পদ না থাকার পরও পদায়নের বিষয়ে জানতে চাইলে র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) ইমতিয়াজ আহমেদ যুগান্তরকে বলেন, এটি একটি স্পর্শকাতর বিষয়।

তাই কোনো মন্তব্য করতে পারব না। তারা র‌্যাবে আসার পর এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। আশা করছি, সবাই বসে একটি সিদ্ধান্ত নিতে পারব।

র‌্যাবের অপর এক কর্মকর্তা বলেন, পদায়নের পর নতুন এসপিরা মাঠ পর্যায়ে ক্যাম্প কমান্ডার হিসাবে কাজে যোগ দেবেন। জেলার এসপি ও র‌্যাবের এসপিদের (উপপরিচালক) কাজের ধরন আলাদা।

এতে নতুন যোগদান করা এসপিদের মনোবল ভেঙে যাওয়ার আশংকা আছে। এছাড়া অর্গানোগ্রামের বাইরে যাদের পদায়ন করা হবে তারা বেতন-ভাতা নিয়েও সমস্যায় পড়তে পারেন।

পুলিশ সদর দপ্তরের এআইজি (মিডিয়া) সোহেল রানা যুগান্তরকে বলেন, প্রজ্ঞাপন দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তাই আমরা এ বিষয়ে কিছু বলতে পারব না। মন্ত্রণালয়ই ভালো বলতে পারবে। তাছাড়া যেহেতু র‌্যাবে পদায়নের আদেশ দেওয়া হয়েছে, তাই র‌্যাবও এ নিয়ে বলতে পারবে।

বিষয়টিকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভ্যন্তরীণ বিষয় উল্লেখ করে কোনো মন্তব্য করতে চাননি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, পদায়নের বিষয়টি আমরা শুনেছি। র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) বিষয়টি দেখবেন।

এ বিষয়ে জানতে র‌্যাব ডিজির সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, র‌্যাবে উপপরিচালক পদ আছে ১০৮টি। অর্গানোগ্রাম অনুযায়ী সেনাবাহিনী থেকে ৯৭ জন, পুলিশ থেকে নয়জন এবং আনসার ও সিভিল প্রশাসন থেকে একজন করে এ পদগুলো পূরণ করার কথা।

৯৭টি পদের মধ্যে বর্তমানে কর্মরত আছেন ৬৪ জন। সম্প্রতি আরও ১৪ জনকে সশস্ত্র বাহিনী থেকে পদায়ন করা হয়েছে।

সব মিলিয়ে এখানে পদ শূন্য আছে মাত্র ২৮টি। এ অবস্থায় ৪৮ জনকে কোথায় পদায়ন করা হবে তা নিয়ে বিপাকে আছেন সংশ্লিষ্টরা।

0Shares