ঘূর্ণিঝড় ‘তাওত’ শেষে ধেয়ে আসছে আরেকটি শক্তিশালী ঘূর্নিঝড় ‘যশ‘

প্রকাশিত: ১০:০১ অপরাহ্ণ, মে ২০, ২০২১

ডায়ালসিলেট ::

ঘূর্ণিঝড় ‘তাওত’ এর প্রভাব কাটতে না কাটতেই এবার আরেকটি ঘূর্ণিঝড়ে ধেয়ে আসছে। যার নাম হবে ‘যশ’। ওমান দেশটি এ ঘূর্ণিঝড়ের নামটি দিয়েছে । এটি শক্তিশালী রূপে আসার আশঙ্কা করা হচ্ছে ।

এদিকে ভারতের আবহাওয়া অফিস (আইএমডি) ও ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্র জানিয়েছে, উত্তর আন্দামান সাগর ও পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে আগামী ২২ মে’র দিকে একটি লঘুচাপের সৃষ্টি হতে পারে। পরবর্তীতে লঘুচাপটি নিম্নচাপে পরিণত হয়ে আগামী ২৪ মে’র দিকে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে। আর আগামী ২৬ মে’র দিকে এটি উত্তর পশ্চিম ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গ উপকূলের কাছাকাছি পৌঁছবে।

এর প্রভাবে আগামী ২৪ থেকে ২৬ মে পর্যন্ত মধ্য বঙ্গোপসাগর এবং ২৫ থেকে ২৭ মে পর্যন্ত উত্তর বঙ্গোপসাগর, ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গ সাগর খুব উত্তাল থাকবে। আগামী ২৫ মে বিকাল থেকে ২৬ মে পর্যন্ত উত্তর বঙ্গোপসাগর, ওড়িশা, পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশ উপকূলে ঘণ্টায় সর্বোচ্চ বাতাসের গতিবেগ ৪০ থেকে ৬০ কিলোমিটার থাকবে।

এজন্য আগামী ২৩ থেকে ২৫ মে পর্যন্ত সব মাছ ধরা নৌকা এবং ট্রলারকে মধ্য বঙ্গোপসাগর ও উত্তর বঙ্গোপসাগরে চলাচল নিষেধ করতে এবং ২৪ থেকে ২৭ মে পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গ, ওড়িশা ও বাংলাদেশের উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

বাংলাদেশের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে, যার বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এ কারণে কুষ্টিয়া ও কুমিল্লা অঞ্চলসহ ঢাকা, ময়মনসিংহ, রংপুর, রাজশাহী ও সিলেট বিভাগের দুই-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা এবং ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি এবং বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

0Shares