ক্ষমা চাইলেন জেসুস

dial dial

sylhet

প্রকাশিত: ২:২১ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩, ২০২১

স্পোর্টস ডেস্ক::গ্যাব্রিয়েল জেসুস লাল কার্ড না পেলে হয়তো চিলির বিপক্ষে লড়াইটা আরও সহজ হতো ব্রাজিলের। শেষ আটের লড়াইয়ে বল দখলের উদ্দেশ্যে ম্যানচেস্টার সিটি তারকার ‘ফ্লাইয়িং কিক’এর সুবাদে দৌরাত্ম্য বিস্তার করে চিলি। তবে এমন অনাকাক্সিক্ষত ঘটনার জন্য সতীর্থদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন জেসুস। একই সঙ্গে তার উড়ন্ত লাথির শিকার ইউজিনিও মেনার সুস্থতার খবরে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন তিনি।
ব্রাজিল ও চিলির মধ্যকার কোয়ার্টার ফাইনালে প্রথমার্ধ গোলশূন্য ছিল। রবার্তো ফিরমিনোর বদলি হিসেবে লুকাস পাকুয়েতার গোলে ৪৬ মিনিটে এগিয়ে যায় ব্রাজিল। এর দু’মিনিট পরই দুর্ঘটনা ঘটিয়ে বসেন জেসুস। বাতাসে বলের দখল নিতে গিয়ে মেনার মুখে লাথি মারেন তিনি।সঙ্গে সঙ্গেই লাল কার্ড দেখান রেফারি। ১০ জনের দল নিয়ে জয় পেতে খাবি খেতে হয় পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের।
নিজের ফেসবুক পেজে জেসুস বিষয়টি নিয়ে দুঃখপ্রকাশ করেন। তিনি লিখেন, ‘দুর্ভাগ্যবশত আমি এমন একটি ভুল করেছি, যাতে দলের ক্ষতি হতে পারতো। কিন্তু দলটা শক্তিশালী। আমি আমার সতীর্থদের কাছে ক্ষমা চাই এবং আমি সব সময় ভুল থেকে শিখবো। মেনা সুস্থ আছে জানার পর স্বস্তি লাগছে এবং ওর সঙ্গে কথা বলেছি। এই দলটি খুব ভালো, আমরা সেমিফাইনালে।’
৫ই জুলাই সেমিফাইনালের লড়াইয়ে পেরুর মুখোমুখি হবে ব্রাজিল। লাল কার্ডের কারণে সে ম্যাচে খেলতে পারবেন না জেসুস।
এর আগে ২০১৯ সালের কোপা আমেরিকাতেও লাল কার্ড দেখেছিলেন জেসুস। সেটি ছিল পেরুর বিপক্ষে। তিতে ব্রাজিল কোচের দায়িত্ব নেয়ার পর ৫৯ ম্যাচ খেলেছে ব্রাজিল। এ সময়ে জেসুসই তিতের ব্রাজিলের একমাত্র লাল কার্ড দেখা ফুটবলার।

ডায়ালসিলেটএম/১০

0Shares